পৃথিবীর অদ্ভুত ৫ জায়গা

কোনো জায়গার বিখ্যাত হওয়ার পেছনে জায়গাটি নিয়ে মানুষের আগ্রহ কাজ করে সবচেয়ে বেশি। অদ্ভুত ও বৈচিত্র্যময় জিনিসের প্রতি মানুষের আকর্ষণ স্বভাবজাত। আজ আপনাদের জানাবো কিছু অদ্ভুত জায়গার সম্পর্কে, যেসব জায়গা কিছু অদ্ভুত বৈশিষ্ট্যের কারণে বিখ্যাত-

১. অস্ট্রেলিয়ার সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ

অস্ট্রেলিয়ার এই পর্বতশৃঙ্গ কেবল মহাদেশটির মধ্যে সবচেয়ে বড় নয় বরং এটি ক্রমান্বয়ে বেড়ে উঠছে। পর্বতশৃঙ্গটির নাম মাওসন পিক। এর সর্বশেষ পরিমাপকৃত উচ্চতা ২৭৪৫ মিটার। পর্বতশৃঙ্গটির ৪১০০ কিলোমিটার বিস্তীর্ণ এলাকায় ভলকানো প্রবাহিত হয়ে থাকে। এই মুহূর্তে পর্বতশৃঙ্গটির উচ্চতা প্রায় ২৮০০ মিটার। এর চারদিক বরফে ঢাকা।

২. যে গ্রামের অস্তিত্ব নেই

যুক্তরাজ্যের পূর্ব ল্যাঞ্চাশায়ার অঙ্গরাজ্যের আর্গলেটন শহরটির রয়েছে পোস্টকোড, রিয়েলএস্টেটের তালিকায়ও নাম রয়েছে। কিন্তু গ্রামটি বাস্তবে খুঁজে পাওয়া যায় না। এই গ্রাম কেবল রয়েছে গুগল আর্থ ও গুগল ম্যাপেই।

৩. পাতালপুরী শহর

দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থিত এই শহর পাতালে অবস্থিত। গ্রীষ্মকালে শহরটির তাপমাত্রা থাকে ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপর।

৪. বিড়ালের দ্বীপ

দ্বীপটির নাম তাশিরোজিমা। এই দ্বীপে শুধু বিড়াল থাকে। আনুমানিক ৮০০ বিড়াল এখানে অবস্থান করে। দ্বীপটিতে বিড়ালপ্রেমী পর্যটকরা অনায়াসে ভালো সময় কাটাতে পারবে।

৫. অনাবিষ্কৃত দ্বীপ

ক্যাপ্টেন জেমস কুক ১৭৭৪ সালে স্যান্ডি আইল্যান্ড নামে একটি দ্বীপ খুঁজে বের করেন। প্রশান্ত মহাসাগরীয় ওই দ্বীপে রয়েছে পাম গাছ। ২০১২ সালের নভেম্বর পর্যন্ত দ্বীপটি অনাবিষ্কৃত ছিলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *