সৌদি বিমান টিকিটের দাম কত? সৌদি আরব বিমান ভাড়া ২০২৩

সৌদি বিমান টিকিটের দাম কত? সৌদি আরব বিমান ভাড়া ২০২৩: এখানে  বাংলাদেশ টু সৌদি আরব বিমান টিকেট কত টাকা? তা জানতে পাবেন। সৌদি এয়ারলাইন্স, কাতার এয়ারলাইন্স ও বাংলাদেশ বিমানের মাধ্যমে সৌদি আরব ভ্রমণ করা যায়। এই বিমানের উপরে টিকিটের মূল্য নির্ভর করে। আজকের পোস্টে আপনাদের সাথে বাংলাদেশ টু সৌদি আরব বিমান বিমান ভাড়া কত টাকা এ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য শেয়ার করেছি। টিকিটের দাম নির্ভর করবে আপনি কোন ধরনের বিমানে করে সৌদি আরব যাবেন। নিচে সৌদি বিমান টিকেট দাম কত? বাংলাদেশ বিমান ভাড়া ও যাতায়াত সময় সূচি নিচে দেওয়া আছে দেখুন।

বাংলাদেশে থেকে সৌদি বিমান টিকিটের দাম

শুধু বিমানের টিকিট কেটে সৌদি আরব ভ্রমণ করতে পারবেন না। এজন্য আপনার পাসপোর্ট ও ভিসা থাকতে হবে।টিকিটের দাম ছাড়াও ভিসা ও পাসপোর্ট বানাতে অনেক টাকা খরচ হবে। প্রতি দিন বাংলাদেশ থেকে সৌদি আরবে বেশ কয়েকটি বিমান যাতায়াত করে থাকে। তবে  সকল বিমানের ধরন এক না। যার কারণে এই বিমানের টিকিট মূল্য আলাদা আলাদা করে নির্ধারন করা হয়েছে।
সাধারণত বাংলাদেশ টু সৌদি আরব বিমান টিকেট দাম ২০০০ রিয়াল। যা বাংলাদেশি টাকায় ৫৭০৪০.৭৫ টাকা। সময়ের ব্যবধানে বিমানের টিকিটের মূল্য কম বা বেশি হয়ে থাকে। তাই অনেক সময় এই দামের থেকে বেশি দামেও টিকিট বিক্রি করা হয়ে থাকে। তাই আপনাকে একই টিকিট ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকায় কিনা লাগতে পারে। 

সৌদি বিমান টিকেট দাম কত

বাংলাদেশ থেকে সৌদি আরবের যাওয়ার জন্য কয়েকটি বিমান আছে। যাদের আলাদা আলাদা মডেল বা নাম রয়েছে। এই বিমান গুলো টিকিটের দাম এক এক রকম হয়ে থাকে। অনেক আগে ৩০০০০ থেকে ৩৫০০০ টাকা দিয়ে বিমানের টিকিট ক্রয় করা যেতো। তবে বর্তমান সময়ে সেই মূল্য টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না। শুধুমাত্র সৌদি বিমান টিকেট দাম কত ৬০ হাজার টাকা। এছাড়া অনলাইনে টিকিট বিক্রি করা হয়। যার দাম ৬৫ থেকে ৭০ হাজার টাকা। অনলাইনে টিকিটের দাম বেশি নেওয়া হয়। তবে টিকিট পাওয়ার ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা থাকে। এছাড়া সাউদই আরবের অনেক গুলো শহর রয়েছে। এই শহরের উপর ভিত্তি করেও টিকিটের দাম নির্ভর করে। নিচের অংশে সেই শহরের যেতে টিকিটের খরচ কত লাগে তা  আলোচনা করা হয়েছে।

ঢাকা টু রিয়াদ বিমান টিকেট মূল্য

এটি সৌদি আরবের একটি শহর এবং রাজধানী। বাংলাদেশ থেকে সরাসরি রিয়াদে যাওয়ার জন্য সৌদি এয়ারলাইন্স আছে। এছাড়া কাতার  এয়ারলাইন্স, বাংলাদেশে এয়ারলাইন্স ও রিয়াদ এয়ারলাইন্স আছে। যাদের বিমানের উপরের টিকিটের দাম নির্ভর করে। সাধারণত ঢাকা টু রিয়াদ বিমান টিকেট মূল্য ৪৮,০০০ টাকা। অনলাইনে এই টিকিটের দাম নিবে ৫৫ হাজার থেকে ৬০ হাজার টাকা। যাতায়াত সময় সূচি টিকিটের মধ্যে দেওয়া থাকবেন।

ঢাকা টু দাম্মাম বিমান টিকিট মূল্য

সৌদি আরবের কয়েকটি প্রদেশ আছে। যার মধ্যে একটি হচ্ছে দাম্মাম। অনেকে বাংলাদেশ থেকে ভ্রমণের উদ্দেশ্য দাম্মাম শহরে যায়।আবার কাজের উদ্দেশ্য এই শহরে অনেক মানুষ নেওয়া হয়। বাংলাদেশ থেকে সরাসরি দাম্মাম শহরে একটি বিমান রয়েছে। ঢাকা টু দাম্মাম বিমান টিকিট মূল্য ৫০,০০০ টাকা। যদি আপনারা ডলার দিয়ে টিকিট ক্রয় করেন তাহলে সেই ক্ষেত্রে টিকিটের দাম এর থেকে কিছুটা কমে পেতে পারেন।

ঢাকা টু জেদ্দা বিমান টিকেট মূল্য

জেদ্দা এটি একটি সৌদি আরবের প্রদেশ বা শহর। যেখানে কয়েকটি বিমান নিয়মিত যাতায়ত করে থাকে। যদি আপনারা এই শহরে যেতে চান, তাহলে সরাসরি ঢাকা টু জেদ্দা টিকিট ক্রয় করতে পারেন। ঢাকা টু জেদ্দা বিমান টিকেট মূল্য ৫৪,০০০ টাকা। আপনারা অনলাইনে এই টিকিট কিনতে পারবেন, তবে তার দাম এর থেকে বেশি নেওয়া হবে।

ঢাকা টু মক্কা  বিমান টিকিট মূল্য

মক্কা হচ্ছে সৌদি আরবের একটি জনপ্রিয় শহর। যেখানে মানুষ হজ করার জন্য যায়। এছাড়া ভ্রমণ বা কাজের উদ্দেশ্য প্রতি বছর বাংলাদেশ বা পাকিস্তান থেকে অনেক মানুষ যায়। মক্কা শহরে যাওয়ার জন্য ঢাকা থেকে মক্কা সরাসরি সৌদি এয়ারলাইন্স আছে। এই  এয়ারলাইন্স এর মাধ্যমে মক্কা ভ্রমণ করতে পারবেন। ঢাকা টু মক্কা  বিমান টিকিট মূল্য ৬২,০০০ টাকা। অনলাইনে এই ত৯ইকিতের দাম ৬৭ হাজার থেকে ৭০ হাজার টাকা।

ঢাকা টু মদিনা বিমান টিকিট মূল্য

মক্কা ও মদিনা পাশা-পাশি দুই টি শহর। সৌদি আরবের মদিনা শহর টি বেশ জনপ্রিয়। বাংলাদেশ থেকে সরাসরি সৌদি আরবের মদিনা যাওয়ার জন্য কয়েকটি এয়ারলাইন্স আছে। যার মাধ্যমে মক্কা শহরে আপনারা সরাসরি ভ্রমণ করতে পারবেন। ঢাকা টু মদিনা বিমান টিকিট মূল্য ৬২,০০০ টাকা এবং অনলাইনে টিকিটের দাম ৬৫ থেকে ৭০ হাজার টাকা। 

সৌদি আরবের টিকেটের দাম কত

বাংলাদেশের ঢাকা সহ আরও কয়েকটি বিভাগে বাংলাদেশ বিমান বন্দর আছে। যারা পৃথিবীর সকল দেশেই যাত্রী পরিবহন করে। বাংলাদেশ থেকে বিদেশে যাত্রী সেবা দেওয়ার পাশা-পাশি বিদেশের যাত্রী গুলো বাংলাদেশে আনা হয়। তেমন সৌদি আরবের সাথে বাংলাদেশের কয়েকটি এয়ারলাইন্সের সরাসরি যাতায়াত রয়েছে। যাদের জন্য আলাদা আলাদা টিকিট কাটা হয় এবং এই টিকিটের দামে কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। সাধারণত বাংলাদেশ থেকে সৌদি যেতে একটি টিকিটের দাম ৬০,০০০ থেকে ৭০,০০০ টাকা। তবে বাংলাদেশে ঢাকা বা চট্টগ্রাম থেকে মক্কা, মদিনা, রিয়াদ, দাম্মাম এই রকম শহরের জন্য আবার আলাদা করে টিকিটের দাম নির্ধারন করা হয়েছে। নিচে সৌদি আরবের কয়েকটি শহরের টিকেটের দাম কত  তা দেওয়া হলো।

  1. ঢাকা টু দাম্মাম বিমান টিকিট মূল্য: ৫০হাজার টাকা (কম/বেশি হতে পারে)
  2. ঢাকা টু মদিনা বিমান টিকিট মূল্য: ৬২ হাজার টাকা (কম/বেশি হতে পারে)
  3. ঢাকা টু মক্কা  বিমান টিকিট মূল্য: ৬৫  হাজার টাকা (কম/বেশি হতে পারে)
  4. ঢাকা টু জেদ্দা বিমান টিকেট মূল্য: ৫৪ হাজার টাকা (কম/বেশি হতে পারে)
  5. ঢাকা টু রিয়াদ বিমান টিকেট মূল্য: ৪৮ হাজার টাকা (কম/বেশি হতে পারে)

সৌদি এয়ারলাইন্সের টিকেট দাম

এটি হচ্ছে বাংলাদেশ টু সৌদি আরবের একটি বিমানের নাম। এই বিমানে করে সৌদি আরবে যাত্রী পরিবহন করা হয়। আপনারা চাইলে সৌদি এয়ারলাইন্সের এর মাধ্যমে সৌদি আরব বা এর অনাও শহর মক্কা, মদিনা, দাম্মাম যেতে পারবেন। সৌদি এয়ারলাইন্সের টিকেট দাম ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা। আপনারা অনলেইনেও সৌদি এয়ারলাইন্সের টিকেট ক্রয় করতে পারবেন। এছাড়া বাংলাদেশ থেকেই ডোলার বা রিয়ালের মাধ্যমে সৌদি টিকিট ক্রয় করতে পারবেন।

সৌদি বিমান টিকেট রেট ২০২৩ 

টিকিটের দাম ও রেট দুইটা দুই বিষয়। টিকিটের এরত নির্ভর করবে আপনি কিভাবে টিকিট ক্রয় করতেছেন। সরাসরি টিকিটের দাম ৬০,০০০ থেকে ৭০,০০০ টাকা। অনলাইনে একই টিকিটের মূল্য ৭৫,০০০ টাকা। তবে অনেক টাকা দিয়ে টিকিট ক্রয় করতে হয়। তাই আপনারা এটি ডলারের মাধ্যমেও ক্রয় করতে পারবেন। যদি আপনি কম টাকায় ডলার কিনতে পারেন, তাহলে সেই ক্ষেত্রে আপনার টিকিটের রেট কম হবে। যেমন ৬০০০০ টাকার টিকিট ডলার দিয়ে কিনতে পারলে ৫০ থেকে ৫৫ হাজার লাগতে পারে। এক্ষেত্রে টিকিটের রেট অনেক কম।

এয়ার এরাবিয়া টিকেট দাম কত

সৌদি এয়ারলাইন্স বা এয়ার এরাবিয়া মূলত একই। শুধু ভিন্ন ভিন্ন নামে দেওয়া হয়েছে। তো অনেকে এয়ার এরাবিয়া টিকেট মূল্য সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। এয়ার এরাবিয়া কয়েকটি শহরে যাতায়াত করে থাকে। যার কারণে টিকিটের দাম ভিন ভিন্ন হয়ে থাকে। আপনারা অনলাইন থেকেও এয়ার এরাবিয়া টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন। ঢাকা থেকে এয়ার এরাবিয়া বিমান ছাড়া হয়। এয়ার এরাবিয়া টিকেট দাম ৬৪ হাজার টাকা। তবে ডলারের মাধ্যমে টিকিট ক্রয় করলে ৫৬ থেকে ৬০ হাজার টাকা হবে।

সৌদি বিমান ভাড়া কত

এক দেশ থেকে অন্য যেকোনো দেশে যেতে ভিসা ও পাসপোর্ট লাগে। যা আপনার কাছে অবশ্যই থাকে হবে। এর পর যেতই লাগে তা হলো বিমানের যাতায়াত টিকিট। তবে আলাদা ভাবে বিমান ভাড়া নেওয়া হয় না। আপন যে তিইত ক্রয় করেছেন, সেই টিকিট মূলত আপনার বিমান ভাড়া। আশা করছি সৌদি বিমান ভাড়া কি বা সৌদি বিমান ভাড়া কত  জা বুঝতে পেরেছেন। যদি এখনো না বুঝে থাকেন, তাহলে মনে করে বাংলাদেশ টু সাদি বিমান ভাড়া ৬০ থেকে ৬৫ হাজার টাকা।

শেষ কথাঃ সময় অনুযায়ী টিকিটের দাম কম বা বেশি হতে পারে। তাই টিকিট ক্রয় করার পূর্বে আপনারা যাচাই করে নিবেন। এই পোস্টে আপনাদের কে ইকিতের দাম সম্পর্কে ধারনা দেওয়া হয়েছে।

আশা করছি এই পোস্ট টি আপনাদের ভালো লেগেছে এবং এই পোস্ট থেকে সৌদি বিমান টিকেট দাম কত? সৌদি আরব বিমান ভাড়া ২০২৩ তা জানতে পেরেছেন। এই রকম টিকিটের দাম সম্পর্কে জানতে আমার সাথেই থাকবেন।

Back to top button