শারীরিক সম্পর্ক : যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে যা খাবেন

শারীরিক সম্পর্ক কিভাবে করতে হয়? শারীরিক সম্পর্ক করার নিয়ম জানেন কি? জেনে নিন যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে যা খাবেন।

কোন সময়ে যৌন সম্পর্ক সুস্বাস্থ্যের কথা বলে? শারীরবৃত্তীয়, মানসিক থেকে শুরু করে সামাজিক বিভিন্ন বিষয়ও জড়িয়ে থাকে এর সঙ্গে। জীবনে স্ট্রেস, উদ্বেগ, মানসিক চাপ বাড়লে তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কমতে থাকে লিবিডো।

যৌন সম্পর্ক তৈরির ইচ্ছে যতটা শারীরিক, ততটাই মানসিক। শারীরবৃত্তীয়, মানসিক থেকে শুরু করে সামাজিক বিভিন্ন বিষয়ও জড়িয়ে থাকে এর সঙ্গে। জীবনে স্ট্রেস, উদ্বেগ, মানসিক চাপ বাড়লে তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কমতে থাকে লিবিডো।

কিছু খাবার ডায়েটে রাখলে যৌন সম্পর্ক তৈরির ইচ্ছে বেড়ে যায় বলে মনে করেন পুষ্টিবিদরা। সেই তালিকায় প্রথম দিকে আছে ডার্ক চকোলেট। এর প্রভাবে মস্তিষ্কে সেরোটনিন এবং ডোপামাইনের মাত্রা বৃদ্ধি পায়৷ ফলে মন অনেক বেশি হাল্কা থাকে৷ শারীরিক সম্পর্ক তৈরির পথ প্রশস্ত হয়।

মাছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি আছে। এর ফলে লিবিডো বৃদ্ধি পায়। ভিটামিন বি থ্রি-র প্রভাবে শারীরিক সম্পর্ক তৈরির ইচ্ছে এবং যৌন ক্ষমতা বাড়ায়।

আরও অনেক গুণের পাশাপাশি লিবিডোও বৃদ্ধি করে বাদাম। দূর করে পুরুষদের বন্ধ্যাত্ব৷ ওয়ালনাট বা আখরোট এবং পিনাট বা বাদামের গুণে পুরুষদের দেহে স্বাস্থ্যকর হরমোন উৎপাদন বৃদ্ধি পায়।

ডায়েটে রাখুন ব্রকোলি। এর ফলে বাড়তি ইস্ট্রোজেন শরীর থেকে দূর হয়৷ টেস্টোটেরোনের উৎপাদন বাড়ে।

নিয়মিত খান সেলেরি পাতা। এতে আছে অ্যান্ড্রোস্টেরন। পুরুষদের ঘামের সঙ্গে এই গন্ধহীন হরমোন নির্গত হয়।

রসুনে আছে প্রচুর অ্যালিসিন। ফলে রক্তপ্রবাহ বৃদ্ধি পায়৷ তাছাড়া শীঘ্রপতন-সহ পুরুষদের একাধিক সমস্যা দূর করে রসুন। তাই যৌনজীবন মসৃণ রাখতে রসুনের কোনও বিকল্প নেই।

শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের আবহ তৈরি করতে সহায়ক ওটস-ও। ডায়েটে নিয়মিত রাখুন ওটস৷ এর প্রভাবে টেস্টোটেরন হরমোন উৎপাদন বৃদ্ধি পায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *