শ্রীদেবীর সঙ্গে রোমান্সে ভয় পেয়েছিলেন সালমান!

বলিউডের সুপার হিট তারকা সালমান খান। তার সিনেমা মুক্তি মানেই বক্স অফিসে ঝড়। তাকে ঘিরে ভক্তদের উন্মাদনার তো কোনও কমতি নেই। অন্যদিকে প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীদেবী ছিলেন একাই একশ। সিনেমা হিটের জন্য তার নামই ছিল যথেষ্ট। তার লুক থেকে শুরু করে হাসি, সবই যেন মুহূর্তে মানুষের মন জয় করে নিত।

সালমান খান-শ্রীদেবী জুটি বেঁধেছিলেন দুটি সিনেমায়-‘চন্দ্রমুখী’ ও ‘চাঁদ কা টুকরা’। কিন্তু প্রথম সিনেমাটি করতে রাজি ছিলেন না বলিউডের ভাইজান।

১৯৯৩ সালে মুক্তি পায় ‘চন্দ্রমুখী’। তখন ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন মুখ সালমান খান। কিন্তু কয়েকটি সিনেমা দিয়ে অল্প সময়েই জনপ্রিয়তা পান। এরইমধ্যে আসে ‘চন্দ্রমুখী’র প্রস্তাব। কিন্তু তার বিপরীতে শ্রীদেবীর কথা শুনে খানিকটা বেঁকে বসেছিলে সালমান! এক সাক্ষাৎকারে সেই কারণও জানালেন ‘দাবাং’ তারকা।

শ্রীদেবীর বিপরীতে অভিনয়ের সমস্যা প্রসঙ্গে সালমান জানান, শ্রীদেবী থাকা মানেই বাড়তি চাপ। কারণ তখন তার জনপ্রিয়তা ছিল অনেক হিট নায়কের চেয়েও বেশি। সিনেমায় তিনি থাকা মানেই সব আকর্ষণ তাকে ঘিরেই।

সালমান আরও জানান, শ্রীদেবীর অভিনয় দক্ষতা প্রকট। তার অভিনয়ের দাপটে আশেপাশে চরিত্র ঢেকে যাওয়ার মতো অবস্থা। তখন সালমানের ক্যারিয়ার মাত্র শুরু।

অভিনয় ছাড়াও শ্রীদেবীর সঙ্গে রোমান্স নিয়েও চিন্তিত ছিলেন সালমান খান। তার বিপরীতে কীভাবে সেই চরিত্র ফুটিয়ে তুলবেন সেটি নিয়ে ভাবনায় পড়ে গিয়েছেলেন তিনি।

তবে শেষে পর্যন্ত ‘চন্দ্রমুখী’তে চুক্তিবদ্ধ হন সালমান খান। শুটিংয়ে যাওয়ার পরই সব ভয় কেটে গিয়েছিল তার। সিনেমাটি মুক্তির পর সুপার হিট হয়। পরবর্তীতে এই জুটিকে দেখা যায় ‘চাঁদ কা টুকরা’তে। এটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯৪ সালে।