জর্ডানের সেরা ৫ জায়গা

পৃথিবীতে একটি বিস্ময়কর সমুদ্র রয়েছে। সাঁতার কাটতে আসা দর্শনার্থীরা এ সমুদ্রে কেবল ভেসে থাকেন। সে কারণে একে মৃতসাগর হিসেবে অভিহিত করা হয়। জর্ডানে অবস্থিত সমুদ্রটির উচ্চতা ৪০০ মিটার। এটি জর্ডানের অন্যতম ঐতিহাসিক স্থাপনা। ইতিহাস সচেতন এবং ভ্রমণবিলাসী মানুষ সমুদ্রটি ভ্রমণ করেন। এছাড়া ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের কাছে এটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ মুসলমানরা বিশ্বাস করেন, নবী লূতের (আ:) আহবানে সাড়া না দিয়ে যে জাতি ধ্বংস হয়েছিলো তারা সমুদ্রস্থলেই বসবাস করতো। আজ আপনাদের জানাবো জর্ডানের সেরা ৫ দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে-

কামরানের গুহা

জর্ডান সমুদ্রবর্তী কামরানের গুহা আধুনিক সময়ের অন্যতম ধর্মীয় স্থাপনা। ১৯৪৭ সালে একজন বেদুঈন গুহাটি আবিষ্কার করেন। স্থানীয়ভাবে ডেড সি স্ক্রলস নামে পরিচিত স্থাপনাটির ইতিহাস ইহুদিদের গ্রন্থ ওল্ড টেস্টামেন্ট ও খ্রিস্টানদের গ্রন্থ বাইবেলের বর্ণনার সঙ্গে মিলে যায়। ১৫০ খ্রিস্টপূর্বাব্দে ইহুদিরা জেরুজালেম থেকে এই গুহায় আসে। তখন থেকে এটি তাদের ধর্মীয় কেন্দ্রে পরিণত হয়। কিন্তু ৬৮ খ্রিস্টাব্দে রোমানদের দ্বারা এটি ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়।

মিনারেল সমুদ্রসৈকত
এটি মূলত ডেড সি বা মৃতসাগর নামে পরিচিত। সূর্যাস্তের দৃশ্য দেখার জন্য আগ্রহীদেরকে এখানে ভ্রমণ করতে দেখা যায়। বেশিরভাগ সময়ে প্রেমিকযুগলকে এখানে ভ্রমণ করতে দেখা যায়। মিনারেল সমুদ্রসৈকত জর্ডানের অন্যতম জনপ্রিয় অঞ্চল।

ওয়াদি ডেভিড
দুই উপত্যকার একটি ওয়াদি ডেভিড। এন গেডি নেচার পার্কে দর্শনার্থীরা দূর-দূরান্ত থেকে আসেন। মরুপাহাড় দেখে অনেকেই অভিভূত হন। এছাড়া এখানে এন গেডি স্প্রিং নামে একটি জলপ্রপাত রয়েছে। রয়েছে ক্যালকোলিথিক মন্দির এবং রোমান দুর্গ। সব শ্রেণির মানুষ এই স্থান সম্পর্কে জানার জন্য আগ্রহী।

ওয়াদি আরুগট
আরেকটি উপত্যকা ওয়াদি আরুগট। এটি দক্ষিণ দিকে অবস্থিত। মনোমুগ্ধকর জলপ্রপাত আর আকর্ষণীয় মরুপাহাড়ে ব্যাপকভাবে আনন্দিত হন পর্যটকরা। এখানে পঞ্চম শতাব্দীতে নির্মিত ইহুদি ধর্মাবলম্বীদের উপাসনালয় সিনেগগ রয়েছে।

এন গেডি সমুদ্রসৈকত
জর্ডানের জনপ্রিয় সমুদ্রসৈকত। বিভিন্ন দেশ থেকে সব বয়সের দর্শনার্থী এখানে সাঁতার কাটার জন্য আসেন। এই সমুদ্রের বিশেষত্ব হলো এখানে শত চেষ্টা করেও ডোবা যায় না। অর্থাৎ সমুদ্রে নামলে পর্যটকরা কেবল ভেসে থাকেন, ডোবেন না। বিশেষ করে মুসলমান দর্শনার্থীরা এখানে আসেন।