ম্যারাডোনা খুন হয়েছিলেন, ন্যায়বিচারের দাবি

স্বাভাবিক মৃত্যু নয়, ডিয়েগো ম্যারাডোনা খুন হয়েছিলেন। সম্প্রতি এমনটাই দাবি করে বসেছে তার ভক্তগোষ্ঠী পুয়েবলো ম্যারাডোনিয়ানো। তাদের সঙ্গে কণ্ঠ মিলিয়ে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির মেয়ে জিয়ান্নিনা আর দালমা ম্যারাডোনাও চাইছেন বাবার জন্য ন্যায়বিচার। সে উদ্দেশ্যেই আগামী ১০ মার্চ বুয়েনোস আইরেসের ঐতিহাসিক স্মৃতিস্তম্ভ ‘অবেলিস্কের’ পাদদেশে ভক্তদেরকে জড়ো হওয়ার জন্য অনুরোধও করেছেন তিনি।

গত ২৫ নভেম্বর ৬০ বছর বয়সী ম্যারাডোনা হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুবরণ করেন। এর ঠিক দুই সপ্তাহ আগে আর্জেন্টিনার রাজধানীতে তার মস্তিষ্কে সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছিল। তবে এরপর তার মস্তিষ্কের অস্ত্রোপচার করাস চিকিৎসক লিওপলদো লুক, মনোবিদ অগাস্তিনা কসাচভের বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে কর্তব্যে অবহেলার। অভিযোগের ভিত্তিতে এখন তদন্ত চলছে তার চিকিৎসক ও মনোবিদদের বিরুদ্ধে। অভিযোগের সত্যতা মিললে জড়িত সবার বিরুদ্ধেই দায়ের করা হবে হত্যা মামলা।

এরই মাঝে আগামী ১০ মার্চ আর্জেন্টিনার বুয়েনোস আইরেসে ম্যারাডোনার জন্য ন্যায়বিচারের দাবি জানানোর উদ্দেশ্যে সমবেত হচ্ছে তার ভক্তগোষ্ঠী ম্যারাডোনিয়ানো। তাদের ভাষ্য, ‘ডিয়েগোর জন্য ন্যায়বিচার চাই। তিনি মৃত্যুবরণ করেননি, তাকে তারা হত্যা করেছিল। আমরা এর ন্যায়বিচার, আর এতে জড়িত সবার শাস্তি চাই।’

জিয়ান্নিনা ম্যারাডোনা সম্প্রতি টুইটারে এ সমাবেশের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন। বলেছেন, ‘আপনাদের সবাইকে সেখানে দেখতে চাই। সত্য সবসময়ই সামনে আসবে।’

আগামী ৮ মার্চ অবশ্য বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে সান ইসিদ্রোর প্রসিকিউটররা। ম্যারাডোনার চিকিৎসায় অবহেলা ছিল কিনা তা দেখা হবে সেখানে। ম্যারাডোনার সবচেয়ে বড় মেয়ে দালমার যেন তর সইছে না। সম্প্রতি তিনি এক টুইটে লিখেছেন, ‘লুকের জেলখানায় যেতে আর কয় দিন লাগবে? সঙ্গে সেই অকেজো সাইকিয়াট্রিস্ট আর সাইকলজিস্টদের, নার্সদের? ন্যায়বিচার কিসের জন্য অপেক্ষা করছে?’

মাসখানেক আগে ম্যারাডোনার ডাক্তার আর তার চিকিৎসায় নিয়োজিত নার্সদের কথোপকথন চলে আসে সংবাদ মাধ্যমে। সেখানে ইঙ্গিত মেলে কর্তব্যে অবহেলার। এ থেকেই মূলত ম্যারাডোনার অপমৃত্যুর গুঞ্জন শুরু হয়। ম্যারাডোনা-কন্যা দালমা জানিয়েছিলেন, লুক আর কসাচভের মধ্যকার সেই কথোপকথন শুনে রীতিমতো বমি করে দিয়েছিলেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *