মার্চে নেটফ্লিক্সে যেসব সিনেমা দেখা যাবে

২০২০ সাল ছিল মহামারির বছর। যে কারণে সারা বিশ্বে প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ হয়ে যায়। ফলে নতুন কোনো সিনেমা মুক্তি পায়নি তখন। এর সুযোগ নিয়েছে নেটফ্লিক্স। করোনার কারণে হঠাৎ করে মানুষ ঘরের মধ্যে আবদ্ধ হয়ে গিয়েছিল। তাই লাভজনক অবস্থানে ছিল তারা। ২০২১ সালের প্রথম দুই মাসও তাদের জন্য ব্যতিক্রম ছিল না। সেই ধারাবাহিকতায় মার্চে অনেকগুলো সিনেমা নিয়ে আসছে এই ওটিটি প্লাটফর্ম। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

ব্যাটম্যান বিগিনস
ক্রিস্টোফার নোলান পরিচালিত ‘ব্যাটম্যান বিগিনস’ মুক্তি পায় ২০০৫ সালে। দ্য ডার্ক নাইট ট্রিলজি সিরিজের এই সিনেমা নির্মাণে ১৫ কোটি ডলার ব্যয় হয়েছে। এটির প্লট ব্রুস ওয়াইনকে কেন্দ্র করে। গোথাম শহরে হেনরি ডুকার্ডের সঙ্গে মার্শাল আর্ট শেখেন তিনি। এসময় সে লিগ অব শ্যাডোসের সদস্য ছিল। কিন্তু যখন ব্রুস জানতে পারে প্রকৃতপক্ষে লিগ অব শ্যাডোসের গোথাম শহরকে ধ্বংস করার পরিকল্পনা রয়েছে, তখন সরে আসে তিনি। আর সে সময় আলফ্রেড ও লুসিয়াস ফক্সের সহায়তায় ব্যাটম্যান হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন ব্রুস ওয়াইনে। সিনেমায় অভিনয় করেন ক্রিশ্চিয়ান বেল, কিল্যান মার্ফি, ক্যাটি হোলমস, মাইকেল কেইন, লিয়াম নিসনসহ আরও অনেকে। আইএমডিবি রেটিং ৮.২।

ক্রেজি স্টুপিড লাভ
গ্লেন ফিকারা ও জন রেকা পরিচালিত ‘ক্রেজি স্টুপিড লা’ ২০১১ সালে মুক্তি পায়। অভিনয় করেন রায়ান গোসলিং, ইমা স্টোন, জুলিয়ান ম্যুর, মারিসা টোমাই, আনালিঘ টিপটনসহ আরও অনেকে। সিনেমাটিতে একজন মধ্যবয়সী স্বামীকে দেখানো হয়েছে যাকে তার স্ত্রী ডিভোর্স দিতে চায়। এ সময় তিনিও অন্য এক নারীর প্রেমে পড়ে এবং তার সঙ্গে ডেটিংয়ে যায়। সিনেমাটির চিত্রনাট্য তৈরি করেছেন ড্যান ফগেলম্যান। আইএমডিবি রেটিং ৭.৪।

ড্যান্সেস উইথ উলভস
গৃহযুদ্ধ চলাকালীন এক সৈন্য লাকোটা ইন্ডিয়ান নামে একটি দলের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। তাদের জীবনযাত্রার প্রতি সে আকৃষ্ট হয়ে পড়ে। ফলে সে সৈনিক জীবন ত্যাগ করে দলটির সঙ্গে যুক্ত হয়। এভাবেই সিনেমার কাহিনি এগিয়ে যায়। মাইকেল ব্লেকের গল্প অবলম্বনে ‘ড্যান্সেস উইথ উলভস’ পরিচালনা করেন কেভিন কস্টনার। এটি সেরা সিনেমা হিসেবে এটি অস্কার পুরস্কার অর্জন করে। এতে অভিনয় করেছেন কেভিন কস্টনার, ম্যারি ম্যাকডোনাল্ডসহ আরও অনেকে। আইএমডিবি রেটিং ৮।

আই অ্যাম লিজেন্ড
নিউইয়র্কের বিজ্ঞানী রবার্ট নিভিলকে কেন্দ্র করে সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে। এতে তিনি নিজের রক্ত থেকে কৃত্রিম ভাইরাস তৈরি করেন। ফ্রান্সিস লরেন্স পরিচালিত ‘আই অ্যাম লিজেন্ড’ ২০০৭ সালের ৫ ডিসেম্বর মুক্তি পায়। নির্মাণে ব্যয় হয়েছিল প্রায় ১৬ কোটি ডলার। সেরা পুরুষ অভিনেতা হিসেবে এমটিভি মুভি অ্যাওয়ার্ডসহ আরও অনেক পুরস্কার অর্জন করে। আইএমডিবি রেটিং ৭.২।

রেইন ম্যান
‘রেইন ম্যান’ সিনেমায় দেখানো হয়েছে শার্লি নামে একজন স্বার্থপরকে। মৃত বাবার সম্পত্তির লোভে তার প্রতিবন্ধী ছোট ভাইকে অপহরণ করে ও সম্পত্তি নেয়ার চেষ্টা করে। ব্যারি লেভিনসন পরিচালিত ‘রেইন ম্যান’ ১৯৮৮ সালের ১২ ডিসেম্বর মুক্তি পায়। নির্মাণে ব্যয় হয়েছিল ৩৫ কোটি ৪৮ লাখ ডলার। সেরা অভিনেতা হিসেবে অস্কার পুরস্কারসহ আরও অনেক পুরস্কার অর্জন করে সিনেমাটি। অভিনয়ে ছিলেন ডাস্টিনস হফম্যান, টম ক্রুজসহ আরও অনেকে। আইএমডিবি রেটিং ৮।

দ্য ডার্ক নাইট
সাইকোপ্যাথিক অপরাধী কীভাবে একটি শহরকে নিজ হাতের মুঠোয় নেয় সেটিই দেখানো হয়েছে ক্রিস্টোফার নোলান পরিচালিত ‘দ্য ডার্ক নাইট’-এ। মুক্তি পায় ২০০৮ সালের ১৪ জুলাই। সেরা সহ-নায়ক হিসেবে অস্কারসহ আরও অনেক পুরস্কার অর্জন করে সিনেমাটি। অভিনয়ে ছিলেন ক্রিশ্চিয়ান বেল, গ্যারি ওল্ডম্যান, হেথ লেডগারন, মাইকেল কেইনসহ আরও অনেকে। আইএমডিবি রেটিং ৯।

ট্রেনিং ডে
গোয়েন্দা আলোঞ্জোকে কেন্দ্র করে ‘ট্রেনিং ডে’ নির্মিত হয়েছে। এটি পরিচালনা করেছেন অ্যান্টনি ফুকুয়া। চিত্রনাট্য ও রচনা করেন ডেভিড আয়ার। সেরা অভিনেতা হিসেবে অস্কারসহ আরও অনেক পুরস্কার অর্জন করেছে সিনেমাটি। নির্মাণে ১০ কোটি ৪৯ লাখ ডলার ব্যয় হয়। অভিনয়ে ছিলেন ডেঞ্জেল ওয়াশিংটন, ইথান হওকে, ইভা মেন্ডেস, স্নপ ডগসহ আরও অনেকে। আইএমডিবি রেটিং ৭.৭।

টু উইকস নোটিশ
মার্ক লরেন্স পরিচালিত ‘টু উইকস নোটিশ’ লুসি নামে একজন আইনজীবীকে কেন্দ্র করে নির্মিত হয়েছে। ২০০২ সালের ২০ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পায় সিনেমাটি। মার্ক লরেন্স নিজেই চিত্রনাট্য রচনা করেন। অভিনয়ে ছিলেন হাগ গ্র্যান্ট, সান্দ্রা বুলোক, অ্যালিসা উইটসহ আরও অনেকে। আইএমডিবি রেটিং ৬.২।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *