ফেসবুক সংবাদে যোগ দেবে না অ্যাক্সেল স্প্রিংগার

জার্মানিতে মিডিয়া জায়ান্ট অ্যাক্সেল স্প্রিংগার ফেসবুকের সংবাদ কনটেন্টের লঞ্চিংয়ে যোগ দিতে চায় না। ইউরোপীয় মিডিয়া জায়ান্টটি দাবি করছে, ফেসবুক তাদের কনটেন্টের বিনিময়ে অন্যদের ‘কম পারিশ্রমিক’ দিচ্ছে। সোমবার সিএনএনের খবরে এ তথ্য জানা যায়।

সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুক বলেছে, চলতি বছরের মে মাসে জার্মানিতে ফেসবুক সংবাদ লঞ্চিং করা হবে। তারা একে ‘সাংবাদিকতার জন্য নিবেদিত’ হিসেবে অভিহিত করে। জানুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে এটি লঞ্চিং করা হয়।

ফেসবুক বলছে, জার্মানিতে ফেসবুক সংবাদ লঞ্চিংয়ে সাপ্তাহিক সংবাদপত্র ডের স্পিগেল ও ডি জিট পৃষ্ঠপোষকতা করছে। এছাড়া দৈনিক সংবাদপত্র দ্য হ্যান্ডেলসব্লাট ও ফ্রাংকফুর্টার আলগেমেইন জেইটাগও ফেসবুককে সহযোগিতা করছে।

অ্যাক্সেল স্প্রিংগার বলছে, অর্থনৈতিক বিষয় নিয়ে মতভেদ থাকার কারণে ফেসবুক সংবাদকে সহযোগিতা করবে না তারা। তাদের এক মুখপাত্র বলেন, ‘সংবাদের ব্র্যান্ড হয়ে ওঠার জন্য একাধিক প্ল্যাটফর্মের চেষ্টা করাকে আমরা যুক্তিসঙ্গত বলে মনে করছি। ফেসবুক আমাদেরকে অন্যায়ভাবে কম পারিশ্রমিক দিয়ে চলেছে।’

বৈশ্বিক যুদ্ধ
সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার সরকার এক আইন পাস করেছে। এর মাধ্যমে দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো ফেসবুক, গুগলসহ অন্য একাধিক বড় টেক কোম্পানির সঙ্গে সংবাদ কনটেন্ট শেয়ারের জন্য অর্থ আদায় করতে পারবে। তবে আইনটি মানতে অস্বীকৃতি জানিয়ে গত মাসে ফেসবুক অস্ট্রেলিয়ার সাইটগুলোতে সংবাদ কনটেন্ট শেয়ার বন্ধ করে দেয়।

একই কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্র সংবাদমাধ্যম এবং টেক জায়ান্টগুলোর ব্যাপক মতভেদের কারণে চাপের মধ্যে রয়েছে। কানাডার সরকার বলেছে, আগামী মাসে তারা নতুন আইনের পরিকল্পনা করছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের আইন অনুযায়ী সার্চ ইঞ্জিন ও সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে কোনো সংবাদ কনটেন্ট দেখানোর জন্য সংবাদমাধ্যমকে পেমেন্ট করতে হবে। সোমবার অ্যাক্সেল স্প্রিংগার বলেছে, তাদের উদ্দেশ্য হলো আইন দুটি পালন করা। তারা বলেছে, ‘আমরা ইউরোপীয় ইউনিয়নের পাসকৃত আইন দুটি স্বচ্ছভাবে মেনে চলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছি ও আমাদের যৌক্তিক ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।’