মেসিকে ছাড়িয়ে যেতে পারেন তিনি!

শেষ কিছুদিনে দুরন্ত ফর্মে আছেন। অভিষেকের পর থেকেই দারুণ সব পারফর্ম্যান্সে নজর কাড়ছেন হরহামেশাই। তবে লিওনেল মেসি কিংবা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোদের ছাড়িয়ে যাওয়া? কিলিয়ান এমবাপেকে নিয়ে তার গুরু মরিসিও পচেত্তিনো জানালেন, সে সক্ষমতা আছে তার। ইতোমধ্যেই চলে গেছেন ‘গ্রেট’দের কাতারে, এমনটাও বলে বসেছেন পিএসজি কোচ।

চোটের কারণে নেইমার নেই। তবে তার অভাব পিএসজিকে বুঝতেই দিচ্ছেন না এমবাপে। বার্সার বিপক্ষে করেছেন হ্যাটট্রিক। এরপর ঘরোয়া লিগে সর্বশেষ দিজঁর বিপক্ষে করেছেন জোড়া গোল, যার ফলে চলে এসেছেন ফরাসি লিগের গোলদাতার তালিকার শীর্ষেও।

সেই ২০১৮ বিশ্বকাপে আগমনী বার্তা শোনানোর পর থেকে এভাবেই চলছে এমবাপের ক্যারিয়ার। আর তাতে উঠে আসছে প্রশ্নও? এমবাপেই কি হবেন মেসি-রোনালদোর উত্তরসূরি? এমন প্রশ্ন ধেয়ে এলো দিজঁর বিপক্ষে পারফর্ম্যান্সের পরও। কোচ পচেত্তিনোর জবাব, ‘তার সক্ষমতা আছে। তার এখন কেবল সময় প্রয়োজন। এ প্রক্রিয়াটাকে ত্বরান্বিত করার উপায় নেই আমাদের। আমি মনে করি সে ইতোমধ্যেই বিশ্বসেরাদের কাতারে আছে।’

সময়ই তো চাই এমবাপের। মেসি-রোনালদোদের মতো এক যুগেরও বেশি সময় ধরে শীর্ষস্থানটা ধরে রাখা তো চাট্টিখানি কথা নয়! পচেত্তিনো আরো যোগ করলেন, ‘নিজের সিভি ভারি করতে, প্রাপ্য পরিচিতিটা পেতে আরও সময় চাই তার।’

দলে এমবাপে আছেন। যিনি মেসির বিপক্ষে হ্যাটট্রিকও করেছেন গেল মাসে। নিজেদের মাঠে ফিরতি লেগটা হয়ে যেতে পারে মশাল হাতবদলের মুহূর্তও। তবে এতকিছু ভিড়ে বার্সার ‘প্রত্যাবর্তনের’ সম্ভাবনাটাও উড়িয়ে দিলেন না পচেত্তিনো। জানালেন পরের লেগে ৪-০ কিংবা তার চেয়েও বেশি ব্যবধানে ফিরে আসতে পারেন মেসিরা।

আর তাই আর্জেন্টাইন এই কোচ সাবধান করে দিচ্ছেন দলকে। বললেন, ‘ফুটবলে যে কোনো কিছু সম্ভব। এখানে ইতিবাচক কিংবা নেতিবাচক, যে কোনো কিছুই ঘটে যেতে পারে।’

এভাবে দলকে সাবধান করে দিচ্ছেন পচেত্তিনো। শেষ চার বছরেই যে তার দল প্রথম লেগে দারুণ জয় পেয়েও পরের লেগে হেরে বিদায় নিয়েছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে! ২০১৭ সালে বার্সেলোনার সেই ‘লা রেমুনটাডা’ বা প্রত্যাবর্তনের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ এমন কিছু দেখেছে আরো বহুবার। বার্সেলোনাই তো দুবার রোমা আর লিভারপুলের বিপক্ষে প্রথম লেগে তিন গোলে জিতেও পরের লেগে হেরে বিদায় নিয়েছে। এছাড়াও রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানচেস্টার সিটি, আয়াক্সের মতো দলও এমন হারের বিস্বাদ নিয়েছে।

এমন কিছুর সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না, তবে পচেত্তিনো জানালেন, ইতিবাচকই আছে তার দল। বললেন, ‘অচিন্তনীয় কিছু যে কোনো সময় ঘটে যেতে পারে। কিন্তু এরপরও আমরা ইতিবাচকই আছি। আমরা প্রতি ম্যাচে একই ভাবে প্রস্তুতি নিয়ে থাকি, এ ভাবনাটা থাকে মাথায় যে পরের রাউন্ডে জিততে হলে আমাদেরকে আরও একটা জয় তুলে নিতে হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *