ভাষা খুঁজে পাচ্ছেন না ইশান্ত

ইনজুরি পেসারদের চির শত্রু। চোটে পড়ে ক্যারিয়ারটা ছোট হয়ে আসে অনেকেরই। এদিক থেকে নিজেকে ভাগ্যবান ভাবতেই পারেন ইশান্ত শর্মা। ৩২ বছর বয়সেই খেলে ফেললেন শততম টেস্ট। বুধবার নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে গোলাপি বলের টেস্টে পা রাখলেন অনন্য এক মাইলফলকে। দ্বিতীয় ভারতীয় পেসার হিসাবে ১০০ নম্বর টেস্ট খেললেন ইশান্ত।

এমন সাফল্যের পর তিনি অবশ্য মাটিতেই পা রাখছেন তিনি। সবাই যখন প্রশংশায় পঞ্চমুখ তখন কৃতজ্ঞতা জানাতেও দেরি করলেন না ইশান্ত। ব্যক্তিগত টুইটার অ্যাকাউন্টে সবাইকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

এ মুহূর্তে নিজের আবেগ প্রকাশ করার জন্য শব্দ খুঁজে পাচ্ছি না। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দজি, অমিত শাহজি ও প্রতিমা সিংকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি আমার সতীর্থদের ধন্যবাদ জানাতে চাই, এই সম্মান আর বিশেষ মুহূর্তের জন্য। সবসময় ভালবাসা ও সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। জয় হিন্দ।
-ইশান্ত শর্মা, পেসার, ভারতীয় ক্রিকেট দল

দিনরাতের টেস্টের ইশান্তের প্রতিটি সেরা মুহূর্তের ছবি কোলাজ করে পোস্ট করা হয়েছে টুইটারে। ছবিতে আছেন এই পেসারের স্ত্রী প্রতিমা সিংও। ক্যারিয়ারে যে তার অবদানটাও কম নয়। প্রতিমাও খেলার দুনিয়ার মানুষ। ভারতের জাতীয় নারী বাস্কেটবল দলের খেলোয়াড়!

চোট সামলে ১০০ টেস্ট খেলা সহজ নয়। কপিল দেবের পর দ্বিতীয় ভারতীয় পেসার হিসাবে ১০০ নম্বর টেস্ট খেললেন ইশান্ত।ম্যাচের আগে তার সম্মানে ছিল গার্ড অফ অনার। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এই পেসারের হাতে তুলে দেন বিশেষ স্মারক!