জিরুদের গোলে অ্যাটলেটিকোকে হারিয়ে চেলসির জয়

উড়তে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ হঠাৎ ছন্দ হারিয়েছে। লা লিগায় পয়েন্ট টেবিলে আধিপত্য দেখিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রাখলেও নিজেদের খেলা সবশেষ ৪ ম্যাচের মধ্যে ৩ ম্যাচে পয়েন্ট হারিয়েছে দিয়েগো সিমিওনের দল। ভুগতে হলো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মঞ্চেও। মঙ্গলবার রাতে চেলসির বিপক্ষে হেরেছে অ্যাটলেটিকো। অলিভিয়ে জিরুদের দর্শনীয় এক গোলে ১-০ গোলের ব্যবধানে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে চেলসি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর লড়াইয়ে দুই দলের ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল মাদ্রিদের ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোয়। তবে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে স্পেন সরকার ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় সরিয়ে নেওয়া হয় সেটি। রোমানিয়ার রাজধানী বুখারেস্টে মঙ্গলবার রাতে মাঠে গড়ায় ম্যাচটি।

পুরো ম্যাচ জুড়ে বল দখলের লড়াইয়ে চেলসি এগিয়ে থাকলেও প্রথম সুযোগটি পেয়েছিল অ্যাটলেটিকো। ১৫ মিনিটের মাথায় গোলের দারুণ সুযোগ নষ্ট করে দলকে এগিয়ে নিতে ব্যর্থ হন তুমা লিমাঁর। সতীর্থ লুইস সুয়ারেসের বাড়িয়ে দেওয়া বলে ঠিকমতো পা লাগাতে পারেননি ফরাসি মিডফিল্ডার। গোল শূন্য প্রথমঅর্ধে অ্যাটলেটিকোর অর্জন বলতে এটিই।

প্রথম ৪৫ মিনিটের খেলায় ৫ বার গোলমুখে আক্রমণ সাজিয়েছিল চেলসি। ম্যাচের ৩৯তম মিনিটে গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাকের প্রচেষ্টায় চেলসিকে স্কোর করতে দেয়নি অ্যাটলেটিকো।

বিরতি থেকে ফিরে গোলের দেখা পায় থমাস তুখেলের দল। ৬৮ মিনিটে দলকে উৎসবের উপলক্ষ এনে দেন জিরুদ। চেলসির কাউন্টার অ্যাটাক ফেরাতে চেয়েছিলেন অ্যাটলেটিকো ডিফেন্ডার মারিও এরমেসো। তবে বল ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হন তিনি। উল্টো পায়ে লেগে বল ওপরে উঠে পড়ে। সুযোগটি হাতছাড়া করেননি জিরুদ। অসাধারণ ওভারহেড কিকে বল জালে জড়িয়ে দেন তিনি।

এরপর আর কোন দলই গোলের দেখা পায়নি। ফলে জিরুদের একমাত্র গোলে ১-০ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে চেলসি। স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে আগামী ১৭ মার্চ ফিরতি লেগে আবার মুখোমুখি হবে দুই দল চেলসি-অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *