লাৎসিওর মাঠে বায়ার্নের বড় জয়

বুন্দেসলিগায় নিজেদের শেষ দুই ম্যাচে বেশ ভুগতে হয়েছে বায়ার্ন মিউনিখকে। তবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দাপট ধরে রেখেছে কোচ হানসি ফ্লিকের দল। মঙ্গলবার অতিথি হয়ে লাৎসিওর মাঠে খেলতে নেমেছিল বায়ার্ন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর লড়াইয়ের প্রথম লেগে স্বাগতিকদের ১-৪ গোলের ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা।

ম্যাচে বায়ার্নের হয়ে গোলের দেখা পেয়েছেন রবার্ট লেভানদোভস্কি, জামাল মুসিয়ালা ও লেরয় সানে। তারা প্রত্যাকেই একটি করে গোল করেন। বায়ার্নের অন্য গোলটি আত্মঘাতী। লাৎসিওর হয়ে সান্ত্বনামূলক একমাত্র গোলটি করেন হোয়াকিন কোররেয়া।

সফরকারী হলেও শক্তিমত্তার বিচারে ফেভারিটের তকমা নিয়ে খেলতে নেমেছিল বায়ার্ন। বল দখলের লড়াইয়েও এগিয়ে থাকে তারা। ম্যাচের শুরু থেকে লাৎসিওকে চেপে ধরে বায়ার্ন। প্রথম ৮ মিনিটে দুবার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি বটে, তবে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের গোলের দেখা পেতে খুব বেশি সময় লাগেনি।

ম্যাচের ৯ মিনিটে মাথায় স্কোর করে দলকে এগিয়ে নেন লেভানদোভস্কি। প্রতিপক্ষের ভুলের সুযোগ নিয়ে ঠাণ্ডা মাথায় লাৎসিওর জালে বল জড়িয়ে দেন এই পোলিশ স্ট্রাইকার। ২৩তম মিনিটে সমতা ফেরানোর দারুণ সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন লুইস আলবার্তো। তবে ভুল করেননি মুসিয়ালা। কয়েক সেকেন্ড পরেই তার গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে বায়ার্ন।

প্রথমার্ধের আগে লিড বাড়িয়ে ০-৩ করেন সানে। ৪২তম মিনিটে দারুণ গতিতে এগিয়ে যাওয়া ডেভিসের শট ফেরান লাৎসিওর গোলরক্ষক পেপে রেইনা। ফিরতি বলে জাল খুঁজে নেন সানে।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলা শুরু হলে ৪৭তম মিনিটে ফ্রান্সেসকো আকেরবির আত্মঘাতী গোলে বড় লিড পায় বায়ার্ন। ৪-০ গোলে এগিয়ে যায় তারা। পরে অবশ্য ম্যাচে ফেরার মরিয়া চেষ্টা চালিয়েছিল লাৎসিও। তবে লাভ হয়নি তাতে। ৪৯তম মিনিটের মাথায় এক গোল শোধ দেন কোররেয়া। এতে হারের ব্যবধানটাই কমে শুধু। ১-৪ গোলের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বায়ার্ন। ১৭ মার্চ হবে ফিরতি পর্ব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *