চালের ওপর কাবার ছবি আঁকলেন মরক্কোর শিল্পী

ক্ষুদ্র চালের ওপর আল্লাহর ঘর কাবার ছবি এঁকে সর্বমহলে ব্যাপক প্রশংসিত হচ্ছেন মরক্কোর মিনিয়েচার শিল্পী ফুয়াদ কাবদানি। এর আগে তিনি ডালের ওপর ছবি এঁকেও কৃতিত্বের পরিচয় দিয়েছেন। তবে এবার চালের ওপর মুসলমানদের পবিত্র কেবলার ছবি আঁকায় বাড়তি প্রশংসা পাচ্ছেন তিনি।

৩০ বছর বয়সী ফুয়াদ পেশায় একজন ভাস্কর ও মিনিয়েচার শিল্পী। ফুয়াদের মতে, মিনিয়েচার অন্যতম কঠিন শিল্প। এখানে প্রতিটি কাজের জন্য কঠোর পরিশ্রমের প্রয়োজন হয়। অত্যাধুনিক সরঞ্জাম থাকলেও এই শিল্পে সফলতা পেতে অসীম ধৈর্য নিয়ে কাজ করতে হয় এবং মেধার মার্জিত ব্যবহার নিশ্চিত করতে হয়।

চিত্রকর্ম প্রসঙ্গে ফুয়াদ বলেন, ‘বিভিন্ন ক্ষুদ্র জিনিসের ওপর অনেক ছবি আঁকার পরিকল্পনা আমি করেছি এবং সবগুলো সফলভাবে আঁকতে পেরেছি। তবে এবার পবিত্র কাবার ছবি আঁকার সিদ্ধান্ত নিই এবং সফল হই। চিত্রকর্মটি আমার জন্য সত্যিকার অর্থেই চ্যালেঞ্জের ছিল। মাত্র ২ ঘণ্টায় আমি আমার প্রতিভার স্ফুরণ ঘটাতে সক্ষম হই।’

ফুয়াদ নিজের কাজের পদ্ধতি ব্যাখ্যা করে বলেন, ‘এই শিল্পের ক্ষেত্রে আমি কখনোই মাইক্রোস্কোপ ব্যবহার করিনি। তবে উচ্চমানের একটি ম্যাগনিফাইং গøাস এবং অর্ধ-মিলিমিটারের একটি পেইন্ট ব্রাশ ব্যবহার করেছি মাত্র। অবশ্য এসব বেশ ব্যয়বহুল সরঞ্জাম।’

এ ধরনের চিত্রকর্মে সফল হওয়ার জন্য অনেক দিনের সাধনার প্রয়োজন। ফুয়াদ জানান, ‘আমি শৈশব থেকেই এই শিল্প অনুশীলন করে আসছি। তখন আমি অনেক সুন্দর ও অদ্ভুত চিত্রকর্ম তৈরি করেছি। আমার শিক্ষক ও পরিবারের সদস্যরা আমাকে সবসময় এই কাজে উৎসাহ জুগিয়েছেন। আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ।’

শিল্পী ফুয়াদ একসময় বিমানে কাজ করতেন। সাঁতার প্রশিক্ষক হিসেবেও তার সুনাম আছে। ফ্যাশন ডিজাইনেও তার হাত বেশ পাকা। এবার তিনি বাজিমাত করলেন মিনিয়েচার শিল্পে অনন্য নজির গড়ে। ধারণা করা হচ্ছে, ক্ষুদ্র ও নিখুঁত হওয়ার দিক থেকে এমন শিল্পকর্ম বিশ্বে এটিই প্রথম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *