উচ্চ রক্তচাপের জন্য উপকারী খাবার

হাইপারটেনশন বা উচ্চ রক্তচাপের কারণে যেকোনো সময় হৃদরোগ হতে পারে। বিশ্বে একশো কোটিরও বেশি মানুষের উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য কিছু খাবার খেতে বলেন চিকিৎসকরা।

জাম্বুরা, কমলা, লেবু

জাম্বুরা, কমলা ও লেবু খেলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা যায়। এসব ফলে ভিটামিন ও মিনারেল রয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে, লেবু, জাম্বুরা ও কমলার জুস খাওয়ার মাধ্যমে উচ্চ রক্তচাপ থেকে মুক্ত থাকা যায়।

স্যামন ও অন্যান্য ফ্যাটি ফিশ

ফ্যাটি ফিশে পর্যাপ্ত পরিমাণে ওমেগা-৩ ফ্যাট, পটাসিয়াম ও ক্যালসিয়াম রয়েছে। এটি খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা যায়। গবেষণায় পাওয়া যায়, যাদের নিম্ন রক্তচাপ বা উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে তাদের অধিকাংশই স্যামন ও অন্যান্য ফ্যাটি ফিশ খান না।

টমেটো

পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ টমেটোতে রয়েছে পটাসিয়াম। টমেটো হৃদরোগ ও উচ্চ রক্তচাপ থেকে দেহকে সুস্থ রাখে। তাই উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে টমেটো খাওয়া উচিত। সকাল-বিকাল যেকোনো সময় টমেটো খাওয়া যেতে পারে।

ব্রোকলি

ব্রোকলি স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী খাবার। হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ থেকে সুস্থ রাখে এটি। দুপুরের খাবারে নিয়মিত ব্রোকলি থাকলে তা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। গবেষণায় দেখা যায়, সপ্তাহে অন্তত একবার যারা ব্রোকলি খান, তারা উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন।

স্ট্রবেরি

স্ট্রবেরি অনেক উপকারী একটি খাবার। যেকোনো সময় এটি খাওয়া যায়। গবেষণায় দেখা যায়, স্ট্রবেরি খেলে উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি অনেক কমে যায়। তাই উচ্চ রক্তচাপ থেকে দূরে থাকতে চাইলে নিয়মিত স্ট্রবেরি খান।

তরমুজ

প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে তরমুজ খেলে উচ্চ রক্তচাপের সম্ভাবনা কমে। উচ্চ রক্তচাপ থেকে বাঁচতে অনেকেই তরমুজ খান। হৃদরোগের জন্যও উপকারী খাবার তরমুজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *