অনন্য গার্দিওলার ম্যানসিটি, নয় গোল-রোমাঞ্চে মরিনিওর বিদায়

শুরুর বাজে ফর্মটা কাটিয়ে ম্যানচেস্টার সিটি ছন্দে ফিরেছে বেশ কিছুদিন ধরেই। এবার এফএ কাপে সোয়ানসি সিটিকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে ঘরোয়া টুর্নামেন্টে টানা জয়ের রেকর্ডও গড়েছে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। তবে প্রতিযোগিতার অন্য ম্যাচে এভারটনের বিপক্ষে নয় গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে ৫-৪ গোলে হেরে বিদায় নিয়েছে কোচ জোসে মরিনিওর টটেনহ্যাম।

বুধবার স্থানীয় সময় রাতে সোয়ানসির মাঠে কাইল ওয়াকারের গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর রাহিম স্টার্লিং ও গ্যাব্রিয়েল জেসুসের লক্ষ্যভেদে ৩-১ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে গার্দিওলার দল। সব ধরনের ইংলিশ প্রতিযোগিতায় এটি দলের ১৫তম জয়। গত নভেম্বরে টটেনহ্যামের কাছে ২-০ গোলে হারের পর থেকেই সব ধরনের প্রতিযোগিতায় প্রায় অদম্য সিটিজেনরা।

সিটির ১৫তম জয়ের ফলে ভেঙে যায় প্রায় ৩৩ বছরের পুরনো রেকর্ড। ১৮৯১-৯২ মৌসুমে সব প্রতিযোগিতায় টানা ১৪ ম্যাচ জয়ের কীর্তি ছিল প্রেস্টন সিটির। এর প্রায় এক শতাব্দী পর ১৯৮৭-৮৮ মৌসুমে এ কীর্তিতে ভাগ বসায় আর্সেনাল। এবার গার্দিওলার শিষ্যরা সে রেকর্ড ভেঙেই বসলো। এর ফলে প্রতিযোগিতার শেষ আটও নিশ্চিত করেছে দলটি।

তবে গার্দিওলার মতো সুখের হয়নি মরিনিওর রাতটা। যদিও তার দল টটেনহ্যাম এভারটনের বিপক্ষে এগিয়ে গিয়েছিল প্রথমেই। দাভিনসন সানচেজের গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর দুই গোল হজম করে বসে স্পার্সরা। ডমিনিক ক্যালভার্ট-লুইনের লক্ষ্যভেদের পর কোচ কার্লো অ্যানচেলত্তির দলকে এগিয়ে দেন রিচার্লিসন। এরিক লামেলা এরপর টটেনহ্যামকে সমতায় ফেরান বিরতির ঠিক আগে।

৬৮ মিনিটে ব্যক্তিগত দ্বিতীয় গোল করে দলকে আবারও এগিয়ে দেন ব্রাজিলিয়ান রিচার্লিসন। ৮৩ মিনিটে স্পার্স অধিনায়ক হ্যারি কেইনের গোল অতিরিক্ত সময়ে নিয়ে যায় ম্যাচটাকে। ৯৭ মিনিটে আরেক ব্রাজিলিয়ান বার্নার্ডের গোলে বিদায় নিশ্চিত হয় মরিনিওর দলের।

এর আগে গত মঙ্গলবার শেষ ষোলোর অন্য ম্যাচে স্কট ম্যাকটমিনের গোল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে তুলে দেয় প্রতিযোগিতার শেষ আটে। আজ বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় রাতে চেলসি খেলবে বার্নস্লের বিপক্ষে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *