রোনালদো নন, মেসিই সেরা


এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো আর লিওনেল মেসির দ্বৈরথ চলছে। এ সময়ে মেসি গ্রহের সেরা ফুটবলারের খেতাব জিতেছেন ছয়বার, রোনালদো পাঁচবার। তাতে অবশ্য সেরার বিতর্ক শেষ হয়ে যায়নি আদৌ। মেসি অবশ্য আরও একটা জায়গায় রোনালদোকে ছাড়িয়ে গেছেন। জিতে নিয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব ফুটবল হিস্টোরি অ্যান্ড স্ট্যাটিসটিকস (আইএফএফএইচএস) এর দশক সেরার খেতাব।

২০১১ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত দুজনের পারফর্ম্যান্সের ভিত্তিতে ফেডারেশনটির ১৫০ দেশের সদস্য এ ভোট দেন সম্প্রতি। দলীয় অর্জনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত সব অর্জনও নিয়ামক হিসেবে কাজ করেছে এতে।

বার্সেলোনার হয়ে শেষ দশ বছরে মেসি জিতেছেন রেকর্ড ছয়টি লা লিগা, দুটো চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও পাঁচটি কোপা দেল রেসহ আরও অনেক শিরোপা। জাতীয় দলের হয়ে শিরোপা না জিতলেও ২০১৪ সালে দলকে নিয়ে গেছেন বিশ্বকাপ ফাইনালে, হয়েছেন বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ও। পরের দুই বছরে দলকে নিয়ে গেছেন দুই কোপা আমেরিকা ফাইনালে।

শেষ দশ বছরে ব্যক্তি মেসিও নানা খেতাবে ভূষিত হয়েছেন বারবার। চারটি ফিফা বর্ষসেরা ও ব্যালন ডি’অর জিতেছেন। স্প্যানিশ লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতার খেতাব পিচিচিও জিতেছেন ছয়টি।

রোনালদোও কম যান কী করে? শেষ দশ বছরে লিগ শিরোপা মাত্র চারটি জিতলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জিতেছেন ৪টি। একটি ইউরো আর একটি উয়েফা নেশন্স লিগ তাকে এগিয়ে রেখেছে মেসি থেকে। মেসির মতো তিনিও ব্যালন ডি’অর জিতেছেন চার বার।
তবে তাদের পরপরই আছেন আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। ২০১২ সালের উয়েফা বর্ষসেরার খেতাব জেতা স্প্যানিশ এই মিডফিল্ডার পেছনে ফেলেছেন নেইমার, সার্জিও রামোসদের মতো সময়ের সেরাদেরও। তালিকায় এছাড়াও আছেন বায়ার্ন অধিনায়ক ম্যানুয়েল নয়্যার, তারই বায়ার্ন সতীর্থ রবার্ট লেভানডভস্কি, রোনালদোর জুভেন্তাস সতীর্থ জিয়ানলুইজি বুফন, জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ ও লুকা মদ্রিচ।