খেলা

অ্যানফিল্ডেও জিততে ভুলে গেছে লিভারপুল

নিজেদের মাঠ অ্যানফিল্ডকে শেষ কয়েক মৌসুমে রীতিমতো দুর্গই বানিয়ে ফেলেছিল লিভারপুল। সে দুর্গকেই এখন মনে হচ্ছে বালির বাঁধ। বার্নলির পর এবার পুঁচকে ব্রাইটনও সালাহদের ১-০ গোলে হারিয়ে গেছে তাদেরই মাঠে!

মোহামেদ সালাহরা ম্যাচের শুরু থেকে শেষতক মুহুর্মুহু আক্রমণ করে গেছেন বটে, কিন্তু তাদের রুখে দেয়ার মন্ত্রটাও যেন জানা সবার। উল্টো ভার্জিল ফন ডাইককে ছাড়া লিভারপুলই রক্ষণে বেশ নড়বড়ে। ৫৬ মিনিটে স্টিভেন আজাতের করা গোলটাতেই তাই নির্ধারিত হয়ে গেছে অল রেডদের হারটা।

এই হারের ফলে শিরোপার দৌড়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা। দিনের অন্য ম্যাচে বার্নলিকে ২-০ গোলে হারানো ম্যানচেস্টার সিটি থেকে এখন সাত পয়েন্টে পিছিয়ে পড়েছে দলটি।

তবে এই হারের ফলে উলটে পালটে গেছে অ্যানফিল্ডের রেকর্ডের পাতাও। নিজেদের মাঠে টানা ৬৮ ম্যাচে অপরাজিত থাকার পর এ নিয়ে টানা দুই ম্যাচে হারল কোচ ক্লপের দল। শেষ তিন ম্যাচে অ্যানফিল্ডে গোল করতে ব্যর্থ হয়েছে দলটি, শেষবার নিজেদের মাঠে টানা তিন ম্যাচে গোলহীন যখন ছিল অল রেডরা, প্রিমিয়ার লিগের বর্তমান রূপের অস্তিত্বই ছিল না তখন! অ্যানফিল্ডে টানা দুই হারের বিস্বাদও দলটি নিয়েছে ২০১২ সালের পর প্রথমবারের মতো।

অথচ শেষ চার বছরে নিজেদের মাঠকে রীতিমতো দুর্গই বানিয়ে ফেলেছিল লিভারপুল। সেই দলের এমন দশার পেছনে কোচ ক্লপ দায়ী করলেন মানসিক অবসাদকে।

“হতাশ, এ থেকে আসলে ইতিবাচক কিছু নেয়ার মতো নেই। এটা মেনে নেয়া কঠিন। আজ রাতে মনে হয়েছে আমরা মানসিক আর শারীরিক, কোনোভাবেই চনমনে ছিলাম না। অবসন্ন মনে হচ্ছিল খেলোয়াড়দের।”
-ইয়ুর্গেন ক্লপ, কোচ, লিভারপুল

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button