ফেসবুকে যে ১০ কাজ করবেন না

বিশ্বে ২৭০ বিলিয়ন মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করেন। তাদের মধ্যে অনেকেই নিয়ন্ত্রিতভাবে ফেসবুক ব্যবহার করেন। কিন্তু এমন অনেকে রয়েছেন যারা ফেসবুকে কিছু কাজ করে থাকেন যা শোভনীয় নয়। আজ আপনাদের জানাবো ফেসবুকে যেসব কাজ করা ঠিক নয় সেসব কাজ সম্পর্কে-

১. সবকিছু শেয়ার করা

যে কোনো পোস্ট সামনে এলেই তা শেয়ার করে দেয়ার মানসিকতা থাকে অনেক মানুষের। কিন্তু এর দ্বারা অন্যরা বিরক্ত থাকেন। গবেষণায় দেখা গেছে, যার মধ্যে ফেসবুকে সবকিছু শেয়ার করার প্রবণতা রয়েছে তাকে সবাই এড়িয়ে চলেন।

২. রহস্যজনক স্ট্যাটাস দেয়া

অনেক মানুষই ফেসবুকে রহস্যজনক স্ট্যাটাস দিয়ে থাকেন। যার ফলে তাকে যারা অনুসরণ করছেন তাদের মধ্যে সৃষ্টি হয় সন্দেহ, অবিশ্বাস। যারা এমন পোস্ট করে থাকেন তাদের অনেকে এড়িয়ে চলেন।

৩. স্প্যাম মেসেজ বা পোস্ট করা

ফেসবুকে অনেকে কোথাও ঘুরতে গেলে চেক-ইন দিয়ে থাকেন। এছাড়া অনেক বিরক্তিকর মেসেজ অন্যদের ইনবক্সে পাঠিয়ে থাকেন। ফেসবুকের পরিভাষায় এসব কাজকে স্প্যাম বলা হয়। যেকোনো স্প্যাম মেসেজ বা পোস্ট করা হলে যে কোনো সময় আপনার অনুসরণকারীরা আপনার ফেসবুক আইডি রিপোর্ট করে দিতে পারেন।

৪. নিজের নাম পরিবর্তন করা

ফেসবুকে অনেকে অফিসিয়াল নামের বদলে অন্য কোনো নাম রেখে দেন। এতে তাকে চিনতে অন্যদের অসুবিধা হয়। বিশ্বায়নের এই সময়ে ফেসবুক এখন অফিসের নানা কাজে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। কিন্তু কেউ যদি নিজের মূল নামের বদলে অন্য কোনো নাম ফেসবুকে প্রকাশ করেন তাহলে তার ওপর অনেকেই বিরক্ত হয়।

৫. ব্যক্তিগত অর্জন দেখানো

ফেসবুকে অনেকে নিজের ব্যক্তিগত অর্জন দেখিয়ে থাকেন। যারা গর্ব করার উদ্দেশ্যে বা লোকদেখানো উদ্দেশ্যে ব্যক্তিগত অর্জন দেখিয়ে থাকেন তাদের প্রতি অন্য মানুষ বিরক্ত হন। অনেক সময় তাদের এড়িয়ে চলেন সবাই।

৬. অন্যকে এমন কিছু জিজ্ঞাসা করা যা গুগলে পাওয়া যায়

ফেসবুকে এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যারা অন্যকে এমন অনেক কিছু জিজ্ঞাসা করে থাকেন যা তারা গুগলের মাধ্যমে সহজেই জানতে পারেন। এই ধরনের মানুষকে অনেকে পছন্দ করেন না। অনেকে তাদের এড়িয়ে চলেন।

৭. অতিরিক্ত শেয়ার করা

যারা ফেসবুকে অতিরিক্ত শেয়ার করে থাকেন তাদেরকে অনেকে অপছন্দ করে থাকেন। ফেসবুকের কোনো পোস্ট, ছবি বা ভিডিও অতিরিক্ত শেয়ার করার কারণে অনেকেই ব্যবহারকারীকে ব্লক করে থাকেন।

৮. রিলেশনশীপ স্ট্যাটাস দেয়ার অনুরোধ করা

ফেসবুকে এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যারা মানুষকে ইনবক্সে প্রেমের প্রস্তাব বা অনুরোধ করে থাকেন। এমন মানুষকে অনেকে এড়িয়ে চলেন। কারণ ইনবক্সে প্রেমের অনুরোধ করার কারণে অপরপক্ষ বিব্রত হয়ে থাকেন।

৯. আপত্তিকর ছবিতে ট্যাগ করা

এমন অনেক মানুষের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট রয়েছে যারা কোনো কারণ ছাড়াই কোনো ছবিতে অন্য কোনো বন্ধুকে ট্যাগ করে থাকেন। এর মধ্য দিয়ে বন্ধুটির আপনার প্রতি খারাপ ধারণা তৈরি হয়।

১০. ক্যান্ডি ক্রাশ লাইভস খেলার অনুরোধ করা

ফেসবুকে অনেকে অবসরের খোরাক হিসেবে ক্যান্ডি ক্রাশ লাইভস খেলার অনুরোধ করে থাকেন। এতে অন্যরা বিরক্ত হন। এছাড়া ক্যান্ডি ক্রাশ লাইভস খেলার মাধ্যমে সময়ের অনেক অপচয় হয়ে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *