গুগল ক্লাউড থেকে প্রথমবারের মতো লাভবান হয়েছে অ্যালফাবেট

সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট অ্যালফাবেট ইনকরপোরেশন মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো গুগল ক্লাউড থেকে লাভবান হয়েছে। অ্যালফাবেট বলেছে, তারা যা চেয়েছিলো তার চেয়ে অনেক বেশি লাভ করতে সমর্থ হয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের খবরে বলা হয়, এর পেছনে রয়েছে কয়েক বছর ধরে গুগল ক্লাউডে বিনিয়োগ ও কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে সবকিছু অনলাইননির্ভর হওয়ার কারণে অ্যালফাবেট লাভবান হয়েছে। বিজ্ঞাপনের ব্যবসায়কে কেন্দ্র করে গুগল প্রতিদ্বন্দ্বী ফেসবুক ও অ্যামাজনকে মোকাবেলা করে থাকে ও গুগল ক্লাউডের দুই অংশ খুচরা ব্যবসায়ীদের জন্য কম্পিউটিং সার্ভিস ও বিভিন্ন করপোরেট কাজের জন্য জিমেইলে ব্যাপক চাহিদা তৈরি করেছে।

জেপি মরগ্যান এবং চেস কোম্পানির বিশেষজ্ঞরা গুগল ক্লাউডের বিষয়ে অনুমান করেছিলো, ২০২০ সালে অ্যালফাবেট গুগল ক্লাউড থেকে ২ শতাংশ পর্যন্ত লাভবান হতে পারবে। একইভাবে ব্যাংক অব অ্যামেরিকার বিশেষজ্ঞরা বলেছিলো, গুগল ক্লাউড থেকে লাভবান হতে পারবে না অ্যালফাবেট।

গুগল ক্লাউডের তুলনায় অ্যামাজন ওয়েব সার্ভিস সবচেয়ে বেশি লাভবান হয়েছে। রয়টার্সে বলা হয়, তারা ৩০ দশমিক ৫ শতাংশ লাভ করতে সমর্থ হয়েছে ও তার আয় ৩ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার। সেদিক থেকে মাইক্রোসফটের আজুর কোম্পানি লাভবান হতে পারেনি।

২০১৬ সাল থেকে গুগল ক্লাউড নিয়ে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল অনেক সিরিয়াস হয়। অনেক বিশ্লেষক মনে করছেন, পাওনা পরিশোধের জন্য গুগল কর্মকর্তা ও তথ্য কেন্দ্রে বিনিয়োগ করছে।

রাফিনিভের তথ্য অনুযায়ী ওয়ালস্ট্রিটের বিশেষজ্ঞরা আগে থেকে বলেছিলেন গুগল ক্লাউডের বিক্রি ৩৮২ কোটি ডলার পর্যন্ত হতে পারে। এসময় তারা আশা করেছিলো, বার্ষিক ১৩০ কোটি ডলার আয় করবে গুগল ক্লাউড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *