উন্নতিতে ডমিঙ্গোর মন জয় করে টেস্টে মুস্তাফিজ

আলো ছড়িয়ে অভিষেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। একটা পর্যায়ে এসে সেই আলো নিভু নিভু প্রায়। বিশেষত সাদা পোশাকের ক্রিকেটে। মুস্তাফিজুর রহমান এরপর যেন নেমেছিলেন নিজেকে ফিরে পাওয়ার লড়াই। সেটা তিনি পুরোপুরি করতে পেরেছেন কিনা এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়াটা কঠিন। তবে পরিশ্রম যে করেছেন সেটা স্পষ্ট সাম্প্রতিক সময়ে তার বোলিংয়ে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে বল ভেতরে ঢুকিয়েছেন ডানহাতি ব্যাটসম্যানের জন্য। যেটা মুস্তাফিজের জন্য চাওয়ার ছিল হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর। বছর খানেক আগে মুস্তাফিজকে টেস্টে উপযুক্ত মনে করেন না বলে জানিয়েছিলেন তিনি। তবে এখন তাকেই টেস্ট দলের বিবেচনায় নিচ্ছেন ডমিঙ্গো।

এক বছরে পাল্টে গেছে দৃশ্যপট। কারণটাও স্পষ্ট করেছেন ডমিঙ্গো। তার দেওয়া চ্যালেঞ্জ জয় করেই টেস্ট দলের বিবেচনায় এসেছেন মুস্তাফিজ। সঙ্গে তার পরিশ্রম করার মানসিকতা মুগ্ধ করেছে জাতীয় দলের হেড কোচকে। সোমবার অনুশীলনে শেষে এক ভিডিও বার্তায় ডমিঙ্গো জানিয়েছেন এমনটা।

‘বেশ কয়েক মাস আগে আমি মনে হয় বলেছিলাম যে, ডানহাতি ব্যাটসম্যানদের জন্য বল ভেতরে আনতে না পারলে মুস্তাফিজ টেস্টে ভুগবে। গত ৮-৯ মাসে সে আমাদের বোলিংয়ের কোচের সঙ্গে অনেক কাজ করেছে ও কঠোর পরিশ্রম করেছে শেপ পেতে। সাদা বলে তার পারফম্যান্স দেখেই নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন যে সে এটি করতে পারছে। ওখনও শতভাগ ধারাবাহিক নয়, তবে তার শেপ পাওয়ার ক্ষেত্রে অনেক উন্নতি হয়েছে।’
-রাসেল ডমিঙ্গো

ডমিঙ্গো আরও বলেন, ‘সে অভিজ্ঞ ও দারুণ একজন পারফর্মার। বাঁহাতি পেসার যেহেতু, বৈচিত্রও যোগ করে দলে। ডানহাতি ব্যাটসম্যানদের জন্য সে অফ স্টাম্পের বাইরে কিছু ক্ষত সৃষ্টি করতে পারে, যা আমাদের অফ স্পিনারদের কাজে লাগতে পারে। অবশ্যই এই টেস্টের জন্য ভালো একজন বিকল্প সে।’

মুস্তাফিজকে কেবল উইন্ডিজদের বিপক্ষেই নয় বরং ভবিষ্যতেও টেস্ট দলে দেখতে চান ডমিঙ্গো, ‘খুব ভালো অনুশীলন করেছে সে। দারুণ ফিট এখন। তার প্রাণশক্তি দারুণ। স্কিলে উল্লেখযোগ্য উন্নতি হয়েছে। গত কয়েক মাসের উন্নতির পর, ভবিষ্যতের জন্যও আমাদের টেস্ট দলের অংশ হিসেবে তাকে দেখছি নিশ্চিতভাবেই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *