পিঠা না কি ফুল!

পিঠা তৈরির জন্য আমাদের খুব একটা উপলক্ষের প্রয়োজন পড়ে না। শীতকাল তো বটেই, সারাবছরই নানা বাহানায় চলে পিঠা খাওয়া। অতিথি আপ্যায়নে পিঠা থাকে, পিঠা থাকে বিকেলের সাধারণ নাস্তাকে অসাধারণ করে তুলতেও। সেসব পিঠা শুধু স্বাদেই ভালো নয়, নকশায়ও হয় অনন্য। একেক পিঠায় একেকরকম নকশা। কখনো পাখি, কখনো ঝিনুক, কখনোবা ফুল। সেসব ফুল আবার জীবন্ত হয়ে ওঠে কারিগরের কৌশলের কারণে। ফুটন্ত ফুল পাতে দেখে তখন চমকে যেতে হয়, পিঠা না কি ফুল!

সব রান্নাই সহজ, যদি আপনি তার রেসিপি জেনে নেন। যেমন ধরুন, রেসিপি শিখে নিলে খুব সহজেই আপনি ফুটন্ত কোনো ফুল তৈরি করতে পারবেন, তবে সেই ফুল হবে পিঠা। পাত ভরা গোলাপ ফুল দেখলে কার না মন ভালো হবে! সহজ রেসিপি শিখে নিয়ে খুব সহজেই প্রিয়জনকে চমকে দিতে পারেন।

তৈরি করতে যা লাগবে

দুধ ১ কাপ
ময়দা ১ কাপ
চিনি ১ কাপ
পানি আধাকাপ
লবণ পরিমাণমতো
তেল পরিমাণমতো।

তৈরি করবেন যেভাবে

প্রথমে একটি পরিষ্কার পাত্রে দুধ ও লবণ দিয়ে ফোটাতে হবে। ফুটে উঠলে তাতে ময়দা দিয়ে ভালো করে নাড়তে হবে। ভালোভাবে মিশে গেলে নামিয়ে ঠান্ডা করে নিতে হবে।

হাতে তেল মেখে ময়দার মিশ্রণ থেকে ছোট ছোট বলের মতো তৈরি করতে হবে। এরপর সেই বলগুলোকে পাতলা করে বেলে নিতে হবে। এরপর একেকটি রুটি থেকে গ্লাসের সাহায্য ছোট ছোট রুটি কেটে নিতে হবে।

তিনটি ছোট রুটি নিয়ে একটির ওপর আরেকটি রাখতে হবে। এবার ময়দার ওই রুটি থেকে বাদ পড়া অতিরিক্ত অংশগুলো ছোট ছোট করে সাজিয়ে ফুলের মাঝখানে আটকে দিতে হবে। গোলাপের পাপড়ি যেমন হয়, সেভাবে তৈরি করতে হবে।

এদিকে আরেকটি পাত্রে পানি এবং চিনি অল্প আঁচে ফুটিয়ে ঘন সিরা তৈরি করে রাখতে হবে।

একটি পরিষ্কার কড়াইয়ে এমাঝারি আঁচে তেল গরম করে নিতে হবে। এরপর তাতে গোলাপ পিঠাগুলো হালকা বাদামি করে ভেজে তুলতে হবে। পিঠাগুলো চিনির সিরায় দিয়ে রাখতে হবে এক ঘণ্টার মতো। এরপর তুলে নিয়ে পরিবেশন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *