সুস্থ থাকার সহজ উপায়

বলা হয়ে থাকে স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। স্বাস্থ্য ভালো থাকলে সুখ এমনিতেই ধরা দেয়। স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে, পরিমিত খাবার খেতে হবে এবং রুটিনমাফিক চলতে হবে। আজ আপনাদের সামনে উপস্থাপন করবো কোন কোন উপায়ে সুস্থ থাকা যায়।

ব্যায়াম ও খেলাধুলা

প্রতিদিন সকালে ব্যায়াম ও খেলাধুলা করে স্বাস্থ্য ভালো রাখা যায়। ব্যায়ামের মাধ্যমে শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গগুলো সচল হয়ে থাকে। এছাড়া খেলাধুলার মাধ্যমে মন অনেক ভালো হয়।

নিজেকে ব্যস্ত রাখা

সুস্থ থাকার জন্য বিশেষ কোনো কার্যক্রমের সঙ্গে নিজেকে ব্যস্ত রাখা অপরিহার্য। তা হতে পারে সাংস্কৃতিক বা অন্যান্য কার্যক্রম। আইস স্কেটিং, সার্ফিং বা নৃত্য- যেকোনো কিছুতে নিজেকে সংযুক্ত রাখা যেতে পারে।

তেলেভাজা খাবার না খাওয়া

তেলেভাজা খাবার খেতে পছন্দ করি আমরা প্রায় সবাই। কিন্তু সুস্থ থাকার জন্য তেলেভাজা খাবার খাওয়া যাবে না। যেসব খাবারে ফ্যাটি অ্যাসিড বেশি থাকে সেসব খাবার খাওয়া থেকে বিরত হওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে মঙ্গল।

মাংস কম খাওয়া

গরু বা খাসির মাংসে চর্বি বেশি থাকে। তাই মোটা হয়ে যাওয়ার ভয় যাদের মধ্যে রয়েছে তাদের গরু বা খাসির মাংস না খাওয়াই ভালো। তবে পরিমিত মুরগির মাংস খাওয়া যাবে।

শর্করা জাতীয় খাবার বেশি খাওয়া

মোটা থেকে চিকন হতে চাইলে শর্করা জাতীয় খাবার বেশি খেলে ভালো ফল পাওয়া যাবে। শর্করা জাতীয় খাবার যেমন ভাত, রুটি, আলু খেলে শরীরে শক্তি আসে।

সময়মতো ঘুমানো

সময়মতো ঘুমের অভ্যাস শরীরকে সুস্থ রাখতে যথেষ্ট। একজন সাধারণ মানুষের দৈনিক ৮ ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন। এর বেশি বা কম ঘুমালে শরীর রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা হারায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *