ত্বক উজ্জ্বল করতে কী খাবেন?

প্রতিদিন কতরকম খাবারই তো খাওয়া হয়, তার মধ্যে কোন খাবারটি ত্বকের জন্য ভালো আর কোনটি নয় তা বোঝা মুশকিল। অনেক সময় উপকারী মনে করে খেলেও সেই খাবারে ‍উপকার মেলে না তেমন। আবার অনেক সময় আমাদের অজান্তেই উপকারী খাবারগুলো আমরা এড়িয়ে যাই। এদিকে দিনে দিনে ত্বক হতে থাকে মলিন। বাজার থেকে কিনে এনে এটা-সেটা ব্যবহার করেও মেলে না উপকার। ত্বক রুক্ষ হলে দেখতেও লাগে বেমানান। মানায় না কোনোরকম সাজগোজেই। তাই ত্বকের যত্ন নিতে হবে ভেতর থেকে। খেতে হবে ত্বকের জন্য উপকারী সব খাবার। কারণ শরীরে সঠিক পুষ্টি না পৌঁছালে তার প্রভাব ত্বকে পড়বেই।

শুধু খাবার খেলেই হবে না, মানতে হবে কিছু নিয়মও। যেমন ধরুন, যখন মন চায় তখন খেলে চলবে না। খেতে হবে রুটিন মেনে। অর্থাৎ, প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট সময়ে খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে। পর্যাপ্ত পানি পান করতে হবে, পাশাপাশি খেতে হবে অন্তত দুই রকমের ফল। অবশ্যই মানসিক চাপমুক্ত থাকতে হবে। নিয়মিত শরীরচর্চার অভ্যাস থাকতে হবে। খাবারের তালিকায় যোগ করতে হবে ত্বকের যত্নে উপকারী কিছু খাবার। চলুন জেনে নেয়া যাক-

ত্বক ভালো রাখবে শসা

রূপচর্চার কাজে শসার ব্যবহার বেশ পুরোনো। এই সবজির বেশিরভাগই পানি দিয়ে পূর্ণ। রূপচর্চার পাশাপাশি শসা খেলেও শরীরে নানা উপকার মেলে। ত্বক সুন্দর রাখতে শসা বেশ কার্যকরী। শসায় আছে নানা উপকারী উপাদান যেমন ভিটামিন এ, সি, কে, ম্যাগনেশিয়াম, পটাশিয়াম, ফোলেট, ক্যালশিয়াম, জিঙ্ক ইত্যাদি। এসব উপাদান ত্বক ভালো রাখার কাজ করে। নিয়মিত শসা খেলে ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখা সহজ হয়। শসা দিয়ে নানারকম সুস্বাদু সালাদ তৈরি করে খেতে পারেন।

প্রতিদিন অন্তত একটি ডিম

শরীরে অন্যান্য উপকারের পাশাপাশি ত্বক ভালো রাখতেও সাহায্য করে ডিম। ডিম খেতে পছন্দ না করলে আপনি অনেক উপকারিতা থেকে বঞ্চিত হবেন। প্রতিদিন সকালের খাবারে অন্তত একটি সেদ্ধ ডিম খেতে চেষ্টা করুন। এতে ত্বকের উজ্জ্বলতা দ্রুত বৃদ্ধি পাবে। নিষেধ না থাকলে ডিমের কুসুম ফেলে খাবেন না। কারণ কুসুমেই রয়েছে সবচেয়ে বেশি ফ্যাট। খাওয়ার পাশাপাশি রূপচর্চার কাজেও ডিমের কুসুম ব্যবহার করতে পারেন।

মাছ ও মাছের তেল

নিয়মিত মাছ খেলে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। প্রায় সবরকম মাছই আমাদের শরীরের জন্য উপকারী। তবে সামুদ্রিক মাছে এই উপকারিতা একটু বেশিই থাকে। কারণ সামুদ্রিক মাছে আছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। আর এই ফ্যাটি অ্যাসিড আমাদের ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। বিভিন্নরকম মাছের পাশাপাশি খেতে পারেন মাছের তেলও। ত্বক উজ্জ্বল করতে মাছের তেলও সমান কার্যকরী।

বাদাম খাবেন যে কারণে

বাদাম খেতে ভালোবাসেন? তাহলে কিন্তু আপনি ত্বক উজ্জ্বল করার তালিকায় অনেকটা এগিয়ে। কারণ প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় বাদাম রাখলে তা আমাদের ত্বক উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। তবে অনেক বেশি খেয়ে ফেলবেন না। প্রতিদিন আপনার ঠিক কতটুকু বাদাম খাওয়া প্রয়োজন তা পুষ্টিবিদের কাছ থেকে জেনে নিতে হবে।

শাকের উপকারিতা

বাজারে পাওয়া যায় বিভিন্নরকম শাক। সেসব শাকের উপকারিতা অনেক। শাক রান্নার আগে অবশ্যই ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে। শাকের ভেতরে থাকা নানা পুষ্টিগুণ আমাদের ত্বক উজ্জ্বল রাখতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় রাখুন নানা পদের শাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *