খাওয়ার পরে এই ৪ কাজ করবেন না

ব্যস্ত জীবনে নিরন্তর ছুটে চলাই যেন আমাদের লক্ষ্য। হাজারটা ব্যস্ততার মাঝে নিজের জন্য মেলে না দু’দণ্ড সময়। অন্যসব কাজের মতো খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রেও চলে তাড়াহুড়ো। ক্ষুধা পেলে কোনোরকম নাকে-মুখে খাবার গুঁজে ফের কাজে লেগে পড়া। এমনটা ঘটে সপ্তাহের বেশিরভাগ দিনই। কী খেলাম, কেন খেলাম সেই ভাবনা ভাবারও সময় থাকে না। এতে করে অস্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে ফেলার ভয় তো থাকেই, পাশাপাশি খাওয়ার আগে-পরে বিভিন্ন অনিয়ম করার কারণে পড়তে হয় আরও অনেক সমস্যায়। ফলে দেখা দিতে পারে নানারকম অসুখ। আর বাড়াবাড়ি পর্যায়ে গেলে পাকস্থলীর ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে!

হয়তে আপনি স্বাস্থ্যকর খাবারই খাচ্ছেন কিন্তু তারপরেও হচ্ছে বিভিন্নরকম অসুখ। এর কারণ হতে পারে খাওয়ার পরপরই এমনকিছু কাজ যা আসলে হজমের জন্য মোটেই উপকারী নয়। আর সেসব ভুল অভ্যাস নিয়মিত বজায় থাকলে সেখান থেকে মরণঘাতি ক্যান্সার দেখা দিতে পারে। তাই খাওয়ার পরপরই কোন কাজগুলো করা যাবে না তা জেনে রাখা জরুরি-

ভরা পেটে ফল খাওয়া

ফল খাওয়া উপকারী তাতে সন্দেহ নেই। তবে কখন ফল খাচ্ছেন তার ওপরে নির্ভর করে সেই ফল থেকে কতটা উপকার মিলবে। ভরপেট খেয়ে উঠেই কয়েক টুকরো ফল খাওয়ার অভ্যাস থাকে অনেকের। এই অভ্যাসকে অনেকেই স্বাস্থ্যকর বলে মনে করেন। আসলেই কি এই অভ্যাস স্বাস্থ্যকর? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, খাওয়ার পরপরই ফল খাওয়া মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। ফল আমাদের ইনটেসটাইনকে পরিষ্কার করে। এদিকে আপনি খাওয়ার পরপরই ফল খেলে দেখা দিতে পারে হজমের মারাত্মক সমস্যা। তাই পেট ভরে খাওয়ার অন্তত আধা ঘণ্টা পরে ফল খান, এর আগে নয়।

খেয়ে উঠেই গরম চা

দুপুরের খাবার শেষে আয়েশ করে এককাপ গরম চা বা কফি না হলে চলেই না অনেকের। কিন্তু এই আয়েশী অভ্যাস ডেকে আনতে পারে নানারকম বিপদ। আপনারও যদি এই একই অভ্যাস থাকে তবে আজই তা বাদ দিন। কারণ ভরা পেটে চা বা কফি খাওয়া একদমই ঠিক নয়। পেট ভরা অবস্থা গরম কোনো তরল পান করলে দেখা দিতে পারে বদহজম, কোষ্ঠকাঠিন্য, গ্যাস্ট্রিকের মতো সমস্যা। এমনকী সমস্যা বেড়ে গেলে হার্ট অ্যাটাক পর্যন্ত হতে পারে!

ধূমপান

ধূমপান সব সময়ের জন্যই ক্ষতিকর। ধূমপান যে ক্ষতিকর একথা সিগারেটের প্যাকেটের গায়েই লেখা থাকে। তবু মানুষ জেনেশুনে বিপদ ডেকে আনে। বিশ্বজুড়ে ধূমপায়ীর সংখ্যা মোটেই কম নয়! এই বিপদ আরও দ্বিগুণ হয় যখন খাওয়ার পরপরই ধূমপান করা হয়। কারণ ভরা পেটে ধূমপান করলে কমতে থাকে হজমক্ষমতা। পেটে গ্যাস হয়ে বাড়তে পারে শরীরের তাপমাত্রাও। তাই ধূমপান ছেড়ে দিন। একান্তই সম্ভব না হলে অন্তত খাওয়ার পরপরই ধূমপান থেকে বিরত থাকুন।

খাওয়ার পরপরই গোসল

ভরা পেটে গোসল করতে যান? সময়ের যতই অভাব হোক, রুটিন বদলে আগে গোসল ও পরে খাওয়ার অভ্যাস করুন। কারণ খাওয়ার পরপরই গোসল করা মোটেই উপকারী নয়। ভুল করেও খেয়ে উঠে গোসলে যাওয়া চলবে না। কারণ খাবার খাওয়ার পরপরই আমাদের শরীরে রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায়। আর গোসল করলে কমে রক্ত সঞ্চালন। তাই ভরা পেটে গোসল করলে দেখা দেয় হজমের সমস্যা। ঠিকভাবে হজম না হলে সেখান থেকে আরও অনেক অসুখ দেখা দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *