সম্পর্ক সুন্দর রাখার সহজ ৩ উপায়

যেকোনো সম্পর্ক সুন্দর রাখার জন্য প্রচেষ্টা থাকতে হয় উভয় পক্ষেরই। দু’জনের মধ্যে ভালো বোঝাপড়া গড়ে উঠলে অনেক সমস্যা থেকে দূরে থাকা সম্ভব। সম্পর্কে বোঝাপড়া যত ভালো থাকে সম্পর্কটি ততটাই সুন্দর হয়ে ওঠে। আপনার ভাবনার প্রকাশই সঙ্গীর সামনে আপনাকে তুলে ধরে। সেজন্য সঙ্গীর কথা শোনার পাশাপাশি নিজের কথাগুলোও তাকে বুঝিয়ে বলতে হবে। যেকোনো এক পক্ষ বললে এবং অন্যপক্ষ শুনে গেলে চলবে না। দু’জনকে দু’জনের কথা শুনতে হবে, পরস্পরের চাওয়া পাওয়া সম্পর্কে জানতে হবে।

স্বচ্ছ থাকুন

সম্পর্ক ভাঙ্গার পেছনে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দায়ী থাকে বোঝাপড়ার অভাব। পরস্পরের প্রতি মানসিক সমর্থন এবং আবেগ না থাকলে সেই সম্পর্ক ধীরে ধীরে প্রাণহীন হয়ে পড়ে। চাওয়া এবং পাওয়ার অমিল হলে বাড়তে থাকে দূরত্ব। তাই একে অন্যের প্রত্যাশা ও আকাঙ্ক্ষা সম্পর্কে জেনে নিন। সামর্থ্য অনুযায়ী সেসব পূরণে সচেষ্ট হোন। এতে করে সম্পর্ক থাকবে সুন্দর এবং সমস্যামুক্ত।

মন খুলে মনের কথা বলুন

অনেক সময় এমন হয়; আমরা আমাদের রাগ, দুঃখ, অভিমান কিংবা সুখের মতো গভীর অনুভূতির বিষয়গুলো মুখে প্রকাশ করি না। মনে মনে কষ্ট পেলে কিংবা খুশি হলেও তা আমাদের মুখ দেখলে বোঝা যায় না। যদি মনে করেন যে আপনার মুখ দেখেই আপনার সঙ্গী মনের কথা বুঝতে পারবে তবে তা সঠিক নয়। মনে রাখবেন, কোনো মানুষের পক্ষেই মুখ দেখে অন্যের মন বোঝা সম্ভব নয়। তাই কোনো বিষয়ে ভুল বোঝাবুঝি হলে তার রেশ ধরে রাখবেন না। বরং কোনো কিছু নিয়ে মনে অসন্তুষ্টি কাজ করলে তা নিয়ে খোলাখুলি কথা বলুন। দু’জন দু’জনের ভুল বুঝতে পারলেই সমস্যার সমাধান হবে সহজে।

পরস্পরের জন্য সময় রাখুন

যাপিত জীবনের নানা ব্যস্ততা, সংসার, অফিস, আত্মীয়তা, কান্তি সামলাতে সামলাতেই আমরা পরস্পর থেকে দূরে সরে যাই। দু’জনের একসঙ্গে কাটানোর সুন্দর মুহূর্তগুলোর সংখ্যা ধীরে ধীরে কমতে থাকে। সবকিছু নিয়েই জীবন; তাই ব্যস্ততা থাকবেই। তবে তার ভেতরে সময় দিতে হবে সঙ্গীকে। বুদ্ধিমান মানুষেরা সবকিছুতে সমন্বয় করে চলেন। মাঝেমাঝেই সঙ্গীকে মনে করিয়ে দিন তাকে আপনি কতটা ভালোবাসেন। ব্যস্ততার ফাঁকে ছোট্ট একটি ফোনকল কিংবা মেসেজ, রিকশায় চড়ে ঘুরে বেড়ানো, পছন্দের কোনো খাবার খেতে যাওয়া এরকম আরো অনেক ছোট ছোট বিষয় সম্পর্ক সুন্দর রাখতে পারে। তাই প্রতিদিন তার জন্য আলাদা কিছুটা সময় রাখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *