ভাইরাস থেকে বাঁচতে যেসব খাবার নিয়মিত খাবেন

শুধু করোনাভাইরাস নয়, আরো অনেক ক্ষতিকর ভাইরাস আমাদের চারপাশে রয়েছে। আর সেসব ভাইরাস থেকে বাঁচতে সচেতন হতে হবে আমাদের। করোনাভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পর আমরা সবাই একটি বিষয় জেনেছি আর তা হলো, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর কোনো বিকল্প নেই। যদি আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভালো থাকে তবে খুব সহজেই যেকোনো ভাইরাসকে ঘায়েল করা সম্ভব। তাই করোনাভাইরাসসহ যেকোনো ভাইরাস নিয়ে উদ্বিগ্ন না হয়ে বরং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে মনোযোগী হোন। প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় আনুন ইতিবাচক পরিবর্তন। এমন খাবার খান যেসব খাবার আপনার শরীরের জন্য প্রয়োজনীয়। তার আগে জেনে নেয়া জরুরি কোন খাবারগুলো আমাদের শরীরের জন্য সবচেয়ে উপকারী, কোন খাবারগুলো খেলে আমাদের শরীরে ভাইরাস থেকে দূরে থাকবে-

পর্যাপ্ত পানি পান করুন

প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় খাবারের মধ্যে পানি অন্যতম। পানি খেলে পেট ভরে না ঠিকই তবে শরীরের নানা কাজে লাগে। আমাদের সুস্থতার জন্য প্রতিদিন পর্যাপ্ত পানি পান করা জরুরি। বিশেষজ্ঞরা বরাবরই পর্যাপ্ত পানি পান করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। প্রতিদিন পর্যাপ্ত পানি পান করলে তা শরীরের ভেতরের ক্ষতিকর জীবাণুদের বের করে দিতে পারে। তাই প্রতিদিন অন্তত আট থেকে ১০ গ্লাস পানি পান করুন।

সবুজ শাক-সবজি খান

আমাদের প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় সবুজ শাক-সবজি রাখা জরুরি। কারণ সবুজ রঙের শাক-সবজি আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এসব শাক-সবজিতে আছে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ই, ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, ফাইবার ও মিনারেল। প্রতিদিন পর্যাপ্ত শাক-সবজি রাখুন খাবারের তালিকায়। এ খাবার আপনাকে ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করবে।

টক জাতীয় ফল খান

ভাইরাস থেকে দূরে থাকে কার্যকরী উপায় হতে পারে টক জাতীয় ফল খাওয়া। কারণ টক জাতীয় ফলে আছে ভিটামিন সি। এই ভিটামিন সর্দি-কাশি ও জ্বর সারাতে কার্যকরী। আমাদের শরীরে উপকারী শ্বেত রক্তকণিকা তৈরিতে সাহায্য করে এই ভিটামিন। আর যেকোনো রকম সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করে ভিটামিন সি। তাই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় পর্যাপ্ত ভিটামিন সি রাখুন।

কাঁচা রসুন খান

একথা নিশ্চয়ই জানা আছে যে প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক বলা হয়। উপকারী এই ভেষজে রয়েছে এন্টিঅক্সিডেন্ট যা ঠান্ডা লাগার মতআ সমস্যা ও ইনফেকশন দূর করতে বেশ কার্যকরী। তাই সব রকমের ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে নিয়মিত খেতে হবে রসুন। সবচেয়ে ভালো হয় খালি পেটে কাঁচা রসুন খেতে পারলে। তবে খুব বেশি নয়, প্রতিদিন দুই কোয়া পরিমাণ রসুন খেলেই তা যথেষ্ট।

টক দই খাবেন যে কারণে

টক দই আমাদের শরীরের জন্য নানাভাবে উপকার বয়ে আনে। প্রতিদিন একবাটি টকদই খেতে পারলে মুক্ত থাকা সম্ভব শরীরের অনেক রকম সমস্যা থেকে। তাই ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে চাইলে প্রতিদিন এক বাটি টক দই খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *