শীতে ছেলেরা ত্বক ভালো রাখতে যা করবেন

শীতের প্রভাব শুধু মেয়েদের ত্বকেই পড়ে না, পড়ে ছেলেদের ত্বকেও। আর ছেলেরা যেহেতু নিজের যত্নে একটু বেশিই উদাসীন থাকে তাই তাদের ত্বকে শীতের আক্রমণও সহজ হয়। বছরের অন্যান্য সময় ততটা বোঝা না গেলেও শীতে একটু অবহেলায়ই ত্বক রুক্ষ হয়ে পড়ে। তাই শীতের সময়ে ছেলেদেরও ত্বকের যত্নে সমান সচেতন হতে হবে। চলুন জেনে নেয়া যাক শীতে ছেলেরা ত্বক ভালো রাখতে কী করবেন-

ক্লিনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার

যে সাবান গায়ে মাখেন সেই সাবান দিয়েই মুখ পরিষ্কার করেন? এই অভ্যাস বাদ দিন। কারণ সাবানে আছে উচ্চ পি এইচ। যা আপনার ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। তাই মুখ পরিষ্কার করার জন্য সাবানের বদলে ক্লিনজার ব্যবহার করুন। এটি ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে। তবে শুধু শীতেই নয়, বছরের অন্যান্য সময়েও ক্লিনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করার অভ্যাস করুন।

এক্সফোলিয়েশন

ত্বকের যত্নে নিয়মিত এক্সফোলিয়েট করা জরুরি। ছেলেরা ত্বক ভালো রাখতে নিয়মিত এক্সফোলিয়েট করুন। এতে ত্বক উজ্জ্বল ও কোমল থাকবে। ত্বকে থাকা মৃত কোষ ঝরে যাবে। সপ্তাহে দুইদিন এক্সফোলিয়েট করতে পারলে শীতেও ত্বক ভালো থাকবে।

ঠোঁটের যত্ন

শীতের প্রভাব সবচেয়ে বেশি পড়ে আমাদের ঠোঁটে। এসময় নিয়মিত লিপবাম ব্যবহার না করলে দ্রুত ঠোঁট ফেটে যায়। তবে শুধু লিপবাম কিংবা গ্লিসারিন ব্যবহার করলেই হবে না, সেইসঙ্গে নিয়মিত নিতে হবে ঠোঁটের যত্নও। ঠোঁট কোমল ও সুন্দর রাখতে নিয়মিত স্ক্রাব করতে হবে।

ময়েশ্চারাইজ করা

শীতে ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখা জরুরি। কারণ এসময় বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ কমে যায়, যার প্রভাব পড়ে আমাদের ত্বকেও। শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে ত্বকও হয়ে পড়ে আর্দ্রতাহীন। তাই এসময়ে প্রতিদিন ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। এটি ত্বককে কোমল রাখে এবং ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে।

পায়ের যত্ন

শীত এলে পা ফাটার সমস্যা দেখা দেয় প্রায় সবারই। শুধু মেয়েরা নয়, এই সমস্যায় পড়েন ছেলেরাও। শীতের এই অত্যাচার থেকে বাঁচতে পায়ের যত্ন নিতে হবে নিয়মিত। শুধু যত্ন নিলেই হবে না, জুতার দিকেও রাখতে হবে নজর। শীতে পা ঢাকা জুতা পরলে পা অনেকটাই ভালো থাকে। সেইসঙ্গে পরতে হবে মোজাও। পা ফেটে গেলে হালকা গরম পানিতে কিছুটা নারিকেল তেল, লবণ ও শ্যাম্পু গুলিয়ে নিয়ে তাতে মিনিট পনের পা ভিজিয়ে রাখুন। এরপর পা ভালোভাবে পরিষ্কার করে ফুট ক্রিম ব্যবহার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *