বিমানে হাতব্যাগে যেসব জিনিস নেবেন না

অধিকাংশ ক্ষেত্রে সাধারণ একজন বিমানযাত্রীকে বিমানবন্দরে বাড়তি সতর্কতা হিসেবে চেক করেন নিরাপত্তাকর্মীরা। সেই কারণে বিমানে ওঠার সময় এমন কিছু জিনিস আছে যা সঙ্গে রাখলে হয়ে ওঠে বাড়তি ঝামেলা।

এতে ভ্রমণকারী নিজেও অনেক সময় বিরক্ত হন। কিন্তু অনেকেই হয়ত জানেন না বিমানে ওঠার সময় কোন জিনিস নেয়া যাবে, কোনটি নেয়া যাবে না।

১. তরল পদার্থ
বিমান ভ্রমণের ক্ষেত্রে তরল পদার্থের কোনো জিনিস যেমন শ্যাম্পু, বডিস্প্রে প্রভৃতি সঙ্গে রাখতে পারবেন না। কারণ কোনো কারণে এসব তরল পদার্থ পড়ে গেলে বিড়ম্বনা পোহাতে হবে আপনাকেই।

২. নিষিদ্ধ যেকোনো বস্তু
বিমান কর্তৃপক্ষ থেকে নিষিদ্ধ এমন কোনো বস্তু নিয়ে আপনি বিমান ভ্রমণ করতে পারবেন না।

৩. অতিরিক্ত জিনিসপত্র
অতিরিক্ত কোনো কিছু বহনে বিরত থাকা ভালো। প্রয়োজনীয় জিনিস ছাড়া কোনো কিছু নেবেন না।

৪. ঝুঁকিপূর্ণ জিনিস
জীবন বিপন্ন করে ফেলে এমন কোনো জিনিস যেমন ধারালো হাতিয়ার নিয়ে বিমানে ওঠা বুদ্ধিমানের কাজ নয়।

৫. স্কেটস
আপনি কখনো স্কেটস নিয়ে বিমানে উঠতে পারবেন না। এখানে রোলার স্কেটস ও আইস স্কেটস উভয়কে বলা হচ্ছে। কারণ স্কেটসের নিচে ধারালো অংশটি ক্ষতিকর।

৬. স্কেটবোর্ড
স্কেটসের সঙ্গে সঙ্গে স্কেটবোর্ড নিয়েও বিমানে উঠতে পারবেন না।

৭. ছিপ
বিমানে মাছ ধরার ছিপ নিয়ে ওঠা যাবে না। উচ্চতায় লম্বা হওয়ার কারণে অনেককে এটি আঘাত করতে পারে।

৮. বাদ্যযন্ত্র
বাদ্যযন্ত্র নিয়েও আপনি বিমানে উঠতে পারবেন না। কারণ তা বিমান চলাচলে বাধা সৃষ্টি করে।

এ ছাড়াও এই জিনিসগুলো হাতব্যাগে নিয়ে আপনি কখনোই বিমানভ্রমণ করতে পারবেন না- মেশিনগান, পিস্তল, নেইল কাটার, রশি, ব্লেড, মাছ, মাংস, পেন্সিল ব্যাটারি, বাটাল, ম্যাচ বাক্স, প্লাস, লাইটার, কাঁচি, ছুরি, সুঁই-সিরিঞ্জ, স্ক্রু ড্রাইভার, কাঁটা চামচ, মরিচের গুড়া, সেভিং ফোম, ক্রিকেট ব্যাট, অ্যারোসল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *