ভারতের জনপ্রিয় পাঁচ সমুদ্রসৈকত

যদি আপনি একই সঙ্গে ভ্রমণপিপাসু ও সমুদ্রপ্রেমী হয়ে থাকেন, তাহলে ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় সমুদ্রসৈকত সম্পর্কে এই পোস্ট আপনার জন্যই। কারণ জনপ্রিয় এসব সমুদ্রসৈকতে ভ্রমণের অভিজ্ঞতা আপনার জীবনের সেরা দিনগুলোর স্মৃতি হয়ে থাকতে পারে।

হেভলক
সামুদ্রিক প্রবালের প্রাণচঞ্চল উপস্থিতিময় একটি সমুদ্রসৈকত হেভলক। এই সৈকত ভারতের দ্বীপরাষ্ট্র আন্দামানে অবস্থিত। দৃষ্টিনন্দন রিসোর্টের কারণে এটি ভ্রমণপিপাসুদের কাছে বেশ জনপ্রিয়।

কোভালম

দ্বীপরাষ্ট্রের পর এবার ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য কেরালায় মনোযোগ দেয়া যাক। এখানে রয়েছে কোভালম সমুদ্রসৈকত। এটি কেরালা অঙ্গরাজ্যের রাজধানী থিরুভানানথাপুরাম থেকে ১৭ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এখানকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য হিসেবে প্রধানত নারকেল গাছগুলোর প্রশংসা করতেই হয়। যে বিষয়টির কথা বলতেই হয়, এখান থেকে আপনি সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত উভয়ই উপভোগ করতে পারবেন।

বোগা এবং কালাংগুয়েট
আপনি যদি এমন কোনো সমুদ্রসৈকতের সন্ধান করেন যেখানে রয়েছে বিশ্রাম ও আমোদপ্রমোদের সব ব্যবস্থা, তাহলে আপনাকে অবশ্যই গোয়ার দিকে তাকাতে হবে। বিশেষ করে কালাংগুয়েটকে ভারতের ‘সকল সমুদ্রসৈকতের রাণী’ হিসেবে অভিহিত করা হয়ে থাকে। গোয়ার রাজধানী পানাজি থেকে ১৬ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই দুটি সমুদ্রসৈকত। এখানে ভারতের ঐতিহ্যবাহী ও প্রাচীন খাদ্যসামগ্রী পাওয়া যায়।

ভারকালা
কেরালায় ফিরে আসি আবার। রাজধানী থেকে একটু দূরে আরেকটি সমুদ্রসৈকতের নাম ভারকালা সমুদ্রসৈকত। মনোরম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য পর্যটকদের কাছে অত্যন্ত প্রিয় একটি দর্শনীয় স্থান এটি।

গনপতিপুল
আপনি যদি সাঁতারু হয়ে থাকেন, তাহলে মহারাষ্ট্রে অবস্থিত গনপতিপুল সমুদ্রসৈকতে আপনার সুন্দর অভিজ্ঞতা হবে। তবে এটি ধর্মীয় তীর্থস্থান হিসেবেও অনেকের কাছে সুবিদিত। এখানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উপাস্য গণেশের স্বয়ম্ভূ মন্দির অবস্থিত। সবচেয়ে বড় বিষয়, আপনি যদি পুরো ভারতের সমুদ্রসৈকত সম্পর্কে জানার জন্য ভ্রমণের পরিকল্পনা করে থাকেন তাহলে এক দৃষ্টিতে আপনার জন্য উপযুক্ত স্থান হবে গনপতিপুল সমুদ্রসৈকত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *