শরীরের যেসব স্থানে স্পর্শ করলে অসুস্থ হতে পারেন

কখনো কারণে, কখনো অকারণে শরীরের বিভিন্ন স্থানে স্পর্শ করার অভ্যাস আমাদের প্রায় সবারই। দুশ্চিন্তায় গালে হাত অথবা নখ কামড়ানো, কানের ভেতরে অকারণেই খোঁচাখুঁচি এরকম অভ্যাস আপনারও আছে কি? হাতও নিশ্চয়ই পরিষ্কার থাকে। তাই আপনি ভাবতে পারেন, পরিষ্কার হাতে নিজের শরীরে নিজে স্পর্শ করলে কী আর এমন ক্ষতি হবে! কিন্তু শরীরের কিছু স্থানে স্পর্শ করলে আপনার অজান্তেই তা হতে পারে ক্ষতির কারণ। চলুন জেনে নেয়া যাক সেই স্থানগুলো সম্পর্কে-

যখন তখন মুখে হাত

কোনকিছু ভাবতে গিয়ে গালে-মুখে হাত দেয়ার অভ্যাস থাকে অনেকেরই। আপাতদৃষ্টিকে একে দোষের কিছু মনে হয় না। কিন্তু এই সাধারণ অভ্যাসও ডেকে আনতে পারে বিপদ। আমাদের হাতে লেগে থাকা ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ব্যাকটেরিয়া মুখে-গালে লেগে ডেকে আনতে পারে অসুখ। ফলে দেখা দিতে পারে ত্বকের সমস্যা। তাই ত্বক ভালো রাখতে অকারণে মুখে স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন।

মুখের ভেতরে স্পর্শ করা

মুখের ভেতরে স্পর্শ করা, নখ দিয়ে দাঁত খোঁচাখুঁচির অভ্যাস থাকলে তা বাদ দিতে হবে। যখন তখন মুখের ভেতরে হাত দিলে সমস্যা বাড়তে পারে। কারণ হাতে লেগে থাকা জীবাণুর মাধ্যমে মুখের ভেতরে ও গলায় ইনফেকশন ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই অকারণে মুখের ভেতরে স্পর্শ করা থেকেও বিরত থাকতে হবে।

অকারণে নখের ভেতরে স্পর্শ

অনেকেরই এই অভ্যাস আছে। কিছু একটা ভাবতে গিয়ে কিংবা এমনিতেই নখের ভেতরে খোঁটাখুঁটি করে থাকেন। আপনি হয়তো ভাবছেন এর মাধ্যমে নখের ভেতরটা পরিষ্কার হলো। কিন্তু এই সাধারণ অভ্যাসের ফলেই দেখা দিতে পারে ফাঙ্গাল ইনফেকশন। আর নখের ভেতরে খোঁটাখুঁটি করার পরে হাত ধুয়ে খাবার খেলেও ইনফেকশনের কারণে পেটে সমস্যা হতে পারে।

চোখে স্পর্শ করলে যা হয়

চোখ কচলানোর অভ্যাস আছে? কখনো কখনো চোখে চুলকানির মতো অনুভব করলে চোখ কচলে শান্তি পান অনেকে। এতে সাময়িক শান্তি মিললেও হতে পারে দীর্ঘকালীন ক্ষতি। চোখে স্পর্শ করলে হাতে থাকা ব্যাকটেরিয়া খুব সহজেই চোখে প্রবেশ করে। ফলে দেখা দিতে পারে চোখের অসুখ। তাই চোখে কোনো সমস্যা মনে হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

কানের ভেতরে খোঁচাখুঁচি

কানের ভেতরে চুলকানো বা খোঁচাখুঁচির বদ অভ্যাস থাকে অনেকের। কিন্তু আঙুল দিয়ে কানের ভেতরে খোঁচাখুঁচি করে বিপদ ডেকে আনতে পারেন! হাতে থাকা ব্যাকটেরিয়া কানের ভেতরে প্রবেশ করে সংক্রমণ ছড়ায়। সেখান থেকে দেখা দিতে পারে আরও বড় কোনো সমস্যা। তাই যতটা সম্ভব কানে হাত দেয়া থেকে বিরত থাকুন।

নাক খোঁটার অভ্যাস

নাক খোঁটার বদ অভ্যাস থাকলে তা বাদ দিন। কারণ হাত দিয়ে নাকের ভেতরে খুঁটলে ব্যাকটেরিয়ার কারণে দেখা দিতে পারে সংক্রমণ। তাই নাক পরিষ্কার করার দরকার হলে পরিষ্কার রুমাল ব্যবহার করুন। এতে সংক্রমিত হওয়ার ভয় থাকবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *