শতভাগ পিওর স্যাফোলা হানি এখন বাজারে

ভোক্তাদের অধিক পুষ্টিমান ও ইম্যুনিটি বুস্টিং সহায়তা সরবরাহের লক্ষ্যে বাজারে এসেছে ১০০% পিওর স্যাফোলা হানি। এটি বাজারজাত করছে ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেড। শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই উপমহাদেশে স্যাফোলা অন্যতম বিশ্বস্ত একটি আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড। আদর্শ পুষ্টিমান সরবরাহ ও বৈজ্ঞানিক দক্ষতায় স্যাফোলা হানির রয়েছে দীর্ঘ ৬০ বছরেরও বেশি সময়ের ঐতিহ্য। সমসাময়িক পরিস্থিতি আমাদেরকে সুস্বাস্থ্য ও হাইজিন বিষয়ে নতুনভাবে ভাবতে শিখিয়েছে। ইম্যুনিটি ও সুস্থতা সম্পর্কে ক্রমবর্ধমান এই সচেতনতাই সুস্থ, সবল জীবনের সহায়ক। বর্তমান সময়ের দাবিতে পিওর ও ইম্যুনিটি বুস্টিং খাবার গ্রহণের যে সচেতনতা তৈরি হয়েছে, এক্ষেত্রে মধু সহ অন্যান্য পুষ্টিকর খাবারের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, স্যাফোলা হানি প্রস্তুত করা হয় সুস্থ, সবল থাকার প্রয়োজনীয়তা পূরণ এবং গ্রাহকের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির নিশ্চয়তা প্রদানের লক্ষ্যে। তাই এর প্রতিটি নতুন ব্যাচ মধুর মান পরীক্ষায় ব্যবহৃত আদর্শ মানদণ্ড হিসেবে বিবেচিত সর্বাধুনিক এনএমআর (নিউক্লিয়ার ম্যাগনেটিক রিজোন্যান্স) পরীক্ষায় পরীক্ষিত, যা নিশ্চিত করে এটি ভেজালমুক্ত ও অতিরিক্ত চিনিমুক্ত।

নতুন স্যাফোলা হানি সম্পর্কে ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর আশীষ গোপাল বলেন, ম্যারিকো তার ফুড পোর্টফোলিও আরও বিস্তৃত করলো। বর্তমান সময়ে কী করছি আর কী খাচ্ছি সে ব্যাপারে আমরা সবাই অত্যন্ত সচেতন। সবশেষে একজন ভোক্তার অবশ্যই খাবারের বিশ্বাসযোগ্যাতা যাচাই করে নেয়া উচিত, বিশেষ করে তা যদি হয় ইম্যুনিটি বুস্টিং খাদ্যপণ্য। স্যাফোলা বাজারের সর্বোৎকৃষ্ট মানের শতভাগ পিওর হানি সরবরাহে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। স্যাফোলা হানির প্রতিটি ব্যাচই এনএমআর পরীক্ষিত এবং শতভাগ পিওরিটির প্রত্যয়নপ্রাপ্ত। ম্যারিকো তার গ্রাহকের সুস্থভাবে জীবনযাপনের জন্য প্রয়োজনীয় চাহিদা পূরণের জন্য নতুন উদ্ভাবনে বিশ্বাস করে এবং আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি স্যাফোলা হানি এই চাহিদা যথাযথভাবে পূরণ করতে সক্ষম হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *