শীতে গরম পানিতে গোসল করা কি ক্ষতিকর?

শীত এলেই বাড়তি আলস্য ভর করে যেন। ঘুম ভাঙলেও লেপ-কম্পলের উষ্ণতা ছেড়ে উঠতে মনে চায় না, ঠান্ডার ভয়ে গোসল করতে মন চায় না। কিন্তু শরীর ও ত্বক ভালো রাখার জন্য প্রতিদিন গোসল করা জরুরি। এমন অবস্থায় গোসলের জন্য গরম পানির প্রতি নির্ভরশীল হয়ে পড়েন অনেকে। প্রায় সবারই ধারণা, গরম পানি আমাদের শরীরের জন্য বেশ উপকারী। সত্যিই কি তাই?

হার্টের জন্য ক্ষতিকর

বাইরে ভীষণ ঠান্ডা আর এদিকে আপনি গরম পানিতে গোসল করছেন। এতে সাময়িক আরাম মিললেও আসলে যে ক্ষতি হচ্ছে তা জানেন কি? এর ফলে আচমকা হার্টের ক্ষতি হতে পারে। এর পাশাপাশি বাড়ে হার্ট অ্যাটাকের ভয়ও। যাদের হার্টের সমস্যা রয়েছে তারা অবশ্যই গোসলের সময় গরম পানি এড়িয়ে চলবেন।

পুরুষেরা গরম পানিতে গোসল করবেন না যে কারণে

গরম পানিতে গোসল করা নারীর চেয়েও পুরুষের জন্য বেশি ক্ষতিকর হতে পারে। এর ফলে সন্তান হওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে। কারণ এমন অভ্যাসের ফলে ফার্টিলিটি কমে যাওয়ার ভয় থাকে। তাই পুরুষের সব সময় ঠান্ডা পানিতে গোসল করা উচিত।

ত্বক শুষ্ক করে দেয়

শীতে আমাদের ত্বক অনেকটাই শুষ্ক হয়ে যায়। তাই এসময় ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখা জরুরি। কিন্তু গরম পানিতে নিয়মিত গোসল করলে ত্বকের আর্দ্রতা কমতে থাকে। ত্বক আরও বেশি শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে যায়। তাই ত্বক সুস্থ ও সুন্দর রাখতে গরম পানিতে গোসল করার অভ্যাস বাদ দিতে হবে।

সমস্যা হতে পারে রক্তচাপেও

নিয়মিত গরম পানিতে গোসল করলে সমস্যা হতে পারে রক্তচাপেও। আমরা যখন গরম পানিতে গোসল করি তখন আমাদের রক্তচাপে পরিবর্তন হতে শুরু করে। এই সময় পুরো শরীরে রক্তের সরবরাহ ঠিক রাখা ও রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখার জন্য হার্টের পরিশ্রম বেড়ে যায়। আর এটি হতে পারে হার্টের রোগীদের জন্য ক্ষতির কারণ।

কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয়

শরীরে গরম পানি ঢাললেই রক্তচাপ তার স্বাভাবিক গতি হারিয়ে ফেলে। এর ফলে আমাদের কর্মক্ষমতা কমে যায়। দেখা দিতে পারে মাথা ঘোরা, গা গোলানো ইত্যাদি সমস্যা।

শীতে গরম পানি দিয়ে গোসল করার অভ্যাস থাকলে তা বাদ দিন। কারণ এটি আপনার জন্য উপকারের বদলে অপকারই বেশি ডেকে আনবে। এর বদলে ঠান্ডা পানিতে গোসল করার অভ্যাস করুন। কারণ এটি স্বাস্থ্যকর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *