সমালোচনা এড়াতে চান ইলন মাস্ক

অ্যান্ডি কানিংহাম দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করেছেন মার্কিন বহুজাতিক প্রযুক্তি কোম্পানি অ্যাপলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী স্টিভ জবসের সঙ্গে। সিলিক্যান ভ্যালির কমিউনিকেশন প্রফেশনাল হিসেবে কাজ করার পর নিজেই কানিংহাম কালেকটিভ নামে একটি মার্কেটিং এজেন্সি প্রতিষ্ঠা করেন।

দীর্ঘদিন যাবৎ গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলার একজন স্বনামধন্য শেয়ারহোল্ডার হিসেবে কাজ করেছেন অ্যান্ডি কানিংহাম এবং টেসলা নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন। অন্যদিকে, ২০১৮ সাল থেকে টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক প্রতিষ্ঠানটিকে সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে দাঁড় করিয়েছেন। পডকাস্টে ইলন মাস্কের মাদক গ্রহণের একটি ফুটেজকে কেন্দ্র করে প্রতিষ্ঠানটি বিরূপ সমালোচনার মুখে পড়ে।

এ সময় মাস্ককে সহায়তায় কি এগিয়ে এসেছিলেন কানিংহাম? তিনি বলেন, ‘যদি মাস্ককে প্রতিষ্ঠানটির কমিউনিকেশন প্ল্যান তৈরি করে সহায়তা করতাম, তাহলে মাস্ক খুশি হতেন।’ প্রতিষ্ঠানটির একজন শেয়ারহোল্ডারকে কানিংহাম বলেছিলেন, তিনি কোনোভাবেই মাস্ককে সহায়তা করতে প্রস্তুত নন।

চলতি মাসে সিএনএন বিজনেসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি প্রতিষ্ঠানটি সম্পর্কে বলেন, ‘ইলন মাস্ককে বিশ্বগড়ার কারিগর হিসেবে দেখা গেলেও প্রকৃতপক্ষে তিনি একজন স্বল্পবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষ। মাস্কের কাজগুলো অনেকের কাছে অনুপ্রেরণামূলক হলেও সেগুলো তাসের ঘর ছাড়া কিছু নয়।’

সম্প্রতি মার্কিন সংবাদপত্র ইলেকট্রিক ‘টেসলা তাদের জনসংযোগের দুর্বলতা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে’ এমন খবর প্রকাশের পর পাবলিক রিলেশনস সোসাইটি অব আমেরিকা এক বিবৃতিতে জানায়, নিষ্ক্রিয়তা কখনও সফলতার পথ হতে পারে না। কিন্তু তারা সিএনএন বিজনেসের কাছে মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *