রান্না সুস্বাদু করার কৌশল জেনে নিন

সবাই চায় তার রান্না সুস্বাদু হোক। কিন্তু নানাভাবে চেষ্টা করার পরও অনেকের রান্না সুস্বাদু হয় না। কোনো না কোনো কমতি থেকেই যায় যেন। অনেকে তখন হতাশ হয়ে হাল ছেড়ে দেন। তবে একটু ধৈর্য ধরে শিখতে পারলে আপনিও হতে পারবেন চমৎকার রাঁধুনী।

যারা ভালো রান্না করেন, তাদের রান্নাও যে সবদিন সুস্বাদু হয় তা কিন্তু নয়। কখনো খাবার পুড়ে যেতে পারে, কখনো বেখেয়ালে ঝাল-লবণ বেশি হয়ে যায়। তখন শখ করে রান্না করা খাবারটি আর সুস্বাদু থাকে না। এমনটা হলেও মন খারাপের কারণ নেই। এমন কিছু কৌশল রয়েছে, যা মেনে চললে রান্না সুস্বাদু হতে বাধ্য। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক-

মাংসের স্বাদ বাড়াতে

মাংস তো প্রায় সব বাড়িতেই রান্না করা হয়। কিন্তু অনেক সময় যত্ন করে রাঁধার পরেও মাংস ঠিক সুস্বাদু লাগে না যেন। কখনো ঝোল বেশি পাতলা মনে হয়, কখনো ঝাল-লবণ বেশি হয়ে যায়, কখনো ভালো করে না কষানোর কারণে কাঁচা মশলার গন্ধ থেকে যায়, কখনো মশলা পুড়ে তেতো হয়ে যেতে পারে। এরকম কোনো সমস্যা হলে কিছু পেঁয়াজ বেরেস্তা করে দিয়ে দিন। বেরেস্তার সঙ্গে আস্ত গরম মশলা মেশাতে পারেন। তাতে সুন্দর গন্ধ আসবে। রান্নায় বেরেস্তা মিশিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে মিনিট পনেরো ঢেকে রাখুন। এরপর চেখে দেখুন, সুস্বাদু মনে হবে।

মাংসে ঝাল-লবণ বেশি হলে

মাংসের ঝোল রাঁধতে গিয়ে যদি ঝাল কিংবা লবণ বেশি হয়ে যায় তখন কী করবেন? একদমই ফেলে দেবেন না যেন! বরং একটি কৌশল মেনে চলুন। সেই রান্নায় খানিকটা দুধ মিশিয়ে দিন। সেইসঙ্গে মেশান সামান্য চিনি। এরপর ঢেকে অল্প আঁচে রাখুন কিছুক্ষণ। ঝাল-লবণ তো কমবেই, বাড়বে স্বাদও।

কাবাব সুস্বাদু করতে

কাবাব তৈরি করেছেন কিন্তু খেতে ভালো হয়নি? মন খারাপ করবেন না। বরং পরিবেশনে কিছু পরিবর্তন আনুন। তৈরি করুন একটি বিশেষ ধরনের রায়তা। খানিকটা টক দই, চিনি, চাট মসলা, মিহি ধনেপাতা-পুদিনাপাতা কুচি, সামান্য লবণ ও সরিষার তেল দিয়ে ভালোভাবে ফেটিয়ে নিন। এই রায়তার সঙ্গে কাবাব খেলে কাবাব আর বিস্বাদ মনে হবে না।

পোলাও নরম হয়ে গেলে

পোলাও, খিচুড়ি, ফ্রায়েড রাইস ইত্যাদি রাঁধতে গিয়ে অনেকে নরম করে ফেলেন। এমন খাবার কারও সামনে পরিবেশন করতেও মন চায় না। এমনটা হলে কী করবেন? ঝরঝরে করার উপায় কিন্তু আছে। একটি খোলা পাত্রে খাবারটুকু ঢেলে ফ্যানের নিচে রাখুন কিছুক্ষণ। ঠান্ডা হয়ে গেলে অনেকটাই ঝরঝরে হয়ে আসবে। তখন আবার কড়াইতে ঢেলে গরম করে নিন। এভাবে সহজেই নরম হয়ে যাওয়া পোলাও, খিচুড়ি ঝরঝরে করা সম্ভব।

মাছের আঁশটে গন্ধ দূর করতে

মাছ যতই ভালো করে ধুয়ে রান্না করা হোক না কেন, আঁশটে গন্ধ পান অনেকে। এমনটা হলে দুটি টমেটো টুকরো করে নিয়ে ঝোলের ভেতর দিয়ে দিন। এরপর এর সঙ্গে মেশান জিরার গুঁড়া ও ধনেপাতা। এরপর কিছুক্ষণ ঢেকে রেখে দিন। আঁশটে গন্ধ দূর হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *