বেয়ার গ্রিলস এখনো যেসব জায়গায় যেতে পারেননি

বেয়ার গ্রিলসের ম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ড সম্পর্কে আমরা সবাই কম-বেশি জানি। বেয়ার গ্রিলস একজন অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় মানুষ। পাহাড়-পর্বত, দুর্গম অরণ্য কিংবা বরফের দেশ- সব জায়গাতেই তিনি করেছেন অ্যাডভেঞ্চার।

তবে এমন অনেক অ্যাডভেঞ্চার রয়েছে যেগুলো তিনি এখন পর্যন্ত করেননি। চলুন সেগুলো সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

১. ভলকানো সার্ফিং

যদি আপনি ভলকানো সার্ফিংয়ের সঙ্গে পরিচিত না হন এবং এই অবস্থায় আপনি মনে করেন যে ভলকানো সার্ফিং মানে লাভার ওপর দিয়ে সার্ফিং করা, তাহলে আপনি ভুল ভাবছেন। ভলকানো শব্দের অর্থ হলো আগুন। ভলকানো সার্ফিং হলো আগুনের ওপর দিয়ে দ্রুত চলে যাওয়ার একটি খেলা।

২. ষাঁড়ের সঙ্গে দৌড় প্রতিযোগিতা

স্পেনের পাম্পলোনা শহরে সান ফারমিন উৎসবে প্রতি বছর আয়োজিত হয়ে থাকে ষাঁড়ের সঙ্গে দৌড় প্রতিযোগিতা। কয়েকটি টেলিভিশন চ্যানেল প্রতিযোগিতাটি সরাসরি সম্প্রচার করে থাকে। প্রতিযোগীরা ষাঁড়ের সঙ্গে সবসময় দৌড়ায় না। তারা প্রথমে ষাঁড়ের সঙ্গে দৌঁড়াতে থাকে এবং পরে তারা থেমে যায়।

৩. উড়োজাহাজের পাখায় দাঁড়ানো

বেয়ার গ্রিলসকে অনেক উঁচু পাহাড় থেকে লাফ দিয়ে নেমে যেতে দেখা গেলেও একটি মজার খেলা তিনি খেলেননি। সেটি হচ্ছে উড়োজাহাজের পাখায় দাঁড়ানো। এই অ্যাডভেঞ্চারের জন্য প্রথমেই আপনার প্রয়োজন প্রশিক্ষণ গ্রহণ করা। আর তারপরে প্র্রয়োজন একটি ছোট উড়োজাহাজের।

৪. ইংলিশ চ্যানেলে নৌকা চালানো

জিব্রাল্টার প্রণালী পার করে ইংলিশ চ্যানেলে নৌকা চালানো দুঃসাহসিক একটি কাজ। আর এই দুঃসাহসিক কাজটি আপনি যদি একা একাই করে থাকেন, তাহলে তা আপনার অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় মনের জন্য অপরিসীম আনন্দের কারণ।

৫. বরফে ঝুলে থাকা

বরফের সঙ্গে ঝুলে থাকা দুঃসাহসিক অভিজ্ঞতাগুলোর মধ্যে একটি। বেয়ার গ্রিলসও এই অ্যাডভেঞ্চার করার সাহস দেখাননি। তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেকে নায়ক হিসেবে উপস্থাপন করতে চাইলে আপনি বরফে ঝুলে থাকার ভিডিও আপলোড করতে পারেন।

৬. মাউন্ট এভারেস্টে লাফালাফি

মাউন্ট এভারেস্ট পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ। বাংলা ভাষায় একে কাঞ্চনজঙ্ঘাও বলা হয়ে থাকে। মাউন্ট এভারেস্টে গিয়ে লাফালাফি করতে অনেককে দেখা গেলেও বেয়ার গ্রিলস তা থেকে বিরত ছিলেন।

৭. সলো ক্রস এন্টার্কটিকা

বরফ মহাদেশ এন্টার্কটিকা ঘুরে দেখা কষ্টসাধ্য। বেয়ার গ্রিলসকে বহু কষ্টসাধ্য অ্যাডভেঞ্চার করতে দেখা গেলেও বরফ মহাদেশ ঘুরতে দেখা যায়নি। কারণ বরফ মহাদেশে হাঁটাচলা করা খুব কঠিন। কিন্তু আপনি যদি অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় হন তাহলে আপনিও ঘুরে দেখতে পারেন এন্টার্কটিকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *