ঘুরে আসুন চীন: সেরা ৭ জায়গা

এশিয়া মহাদেশের মধ্যে সবচেয়ে প্রাচীন দেশের নাম চীন। এখানে যেমন রয়েছে ঐতিহাসিক স্থাপত্য, তেমনই রয়েছে আকাশচুম্বি দালান। পর্যটকদের ভ্রমণের জন্য দেশটির দরজা সবসময় খোলা। চীনের সেরা জায়গাগুলো সম্পর্কে চলুন জেনে আসা যাক-

১. সাংহাই

বিশ্বের ষষ্ঠতম সুউচ্চ দালান ওরিয়েন্টাল পার্ল রেডিও অ্যান্ড টেলিভিশন এই শহরে অবস্থিত। দালানটি হুয়াংপু নদীর তীরে অবস্থিত। সাংহাই শহর বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত ও সমৃদ্ধ শহর। শহরটির সবচেয়ে আকর্ষণীয় জায়গা হলো সাংহাই ডিজনিল্যান্ড। এছাড়া শহরটির প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে হলে যেতে হবে ইয়াংপু ও ন্যানপু সেতুতে।

২. শিয়ান

শহরটি চীনের সানজি প্রদেশের রাজধানী। চীনের প্রাচীন চারটি রাজধানীর মধ্যে অন্যতম। এই শহরে দর্শনীয় স্থান হিসেবে রয়েছে প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘর। এই জাদুঘরে রয়েছে ৫০০ ঘোড়াসহ ১৩০ টি যুদ্ধের ঘোড়ার গাড়ি। উল্লেখ্য, কিন সাম্রাজ্যের সম্রাট কিন শি বিশ্বাস করতেন এগুলো তাকে পরকালে স্বস্তি দেবে!

৩. বেইজিং

বেইজিং চীনের রাজধানী। সিয়ানের মতো এই শহরও চীনের প্রাচীন চারটি রাজধানীর মধ্যে অন্যতম। শহরটিতে রয়েছে ৭টি ইউনেস্কো ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট। এগুলোর মধ্যে গ্রেট ওয়াল অব চায়না অন্যতম। গ্রেট ওয়াল অব চায়নার নির্মাণকাজ শুরু করে স্যাং সাম্রাজ্য, নির্মাণ চালিয়ে যায় হান সাম্রাজ্য ও নির্মাণ শেষ করে মিং সাম্রাজ্যের শাসকরা। এছাড়া বেইজিং শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত রয়েছে নিষিদ্ধ শহর বা ফরবিডেন সিটি। এটি আরেক হেরিটেজ সাইট। এই শহরে মিং সাম্রাজ্যের ২৪ জন সম্রাট বসবাস করেছেন।

৪. চেংড়ু

চেংড়ু চীনের শিচুয়ান প্রদেশের রাজধানী। শহরটির আকর্ষণীয় জায়গা হলো জিনশা সাইট মিউজিয়াম। এছাড়া এই শহরে ছোট-বড় অনেক রেস্তোরাঁ রয়েছে। চেংড়ু য়ু হোউ মন্দির শহরটির সবচেয়ে আকর্ষণীয় জায়গা।

৫. থিয়েনচিন

থিয়েনচিন চীনের ৫টি গুরুত্বপূর্ণ শহরের অন্যতম। শহরটি দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত পৌর সরকারের অধীনে শাসিত হয়। দর্শনীয় স্থানের মধ্যে জিং ওয়াং স্কয়ার, থিয়েনচিন ফাইন্যান্সিয়াল টাওয়ার উল্লেখযোগ্য।

৬. কুয়াং চো

কুয়াং চো চীনের কুয়াংতুং প্রদেশের রাজধানী। শহরটি সমুদ্রবন্দর এবং শিল্প ও বাণিজ্যকেন্দ্রের জন্য পরিচিত। উল্লেখযোগ্য জায়গাগুলোর মধ্যে রয়েছে দ্য ক্যানটন টাওয়ার, সানইয়াট সেন মেমোরিয়েট হল, জেনহাই টাওয়ার।

৭. তুংকুয়ান

শহরটি কুংতুং প্রদেশের আরেকটি শহর। এই শহরের দক্ষিণে রয়েছে শেনচেন নদী ও পশ্চিমে রয়েছে পার্ল নদী। নদীর আশেপাশে ঘুরলে চঞ্চল মন স্থির হয়। এছাড়া কুয়ানাইন পর্বত, হুয়েন সেতু উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *