ঘুরে আসুন কক্সবাজার : সেরা ৫টি জায়গা

হানিমুন বলুন আর হঠাৎ বেড়াতে যাওয়া- কক্সবাজারের তুলনা কক্সবাজারই! এটি এমন একটি জায়গা যেখান থেকে স্বল্প সামর্থ্যের মানুষজনও বেড়িয়ে আসতে পারেন। কিছু টাকা, দুই-তিন দিন সময় আর সুযোগ থাকলে ঘুরে আসতে পারেন বিশ্বের অন্যতম দীর্ঘ এই সমুদ্রসৈকত থেকে। কক্সবাজার বেড়াতে গিয়ে শুয়ে-বসে কাটিয়ে দিলে কি হবে? সেখানকার আকর্ষণীয় জায়গাগুলো দেখতে হবে না? চলুন জেনে নেয়া যাক কক্সবাজারের আকর্ষণীয় কয়েকটি স্থান সম্পর্কে-

১. হিমছড়ি ও ইনানী বিচ

কক্সবাজারের ১২ থেকে ২২ কিলোমিটার দূরত্বের মধ্যে রয়েছে হিমছড়ি ও ইনানী বিচ নামে দুটি আকর্ষণীয় জায়গা। পর্যটকদের কাছে জায়গা দুটি পছন্দের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে। কক্সবাজার সদর থেকে ইনানী বিচে ব্যাটারিচালিত রিকশায় যেতে সময় লাগে আধা ঘণ্টা।

২. কলাতলী, সুগন্ধা, অ্যাকুইরিয়াম ও লাবনী বিচ

পর্যটকদের কাছে আকর্ষণীয় স্থান কলাতলী, সুগন্ধা, অ্যাকুইরিয়াম ও লাবনী সমুদ্রসৈকত। এসব সমুদ্রসৈকতের আশেপাশে থাকার জন্য রয়েছে বিলাসবহুল হোটেল। এছাড়া এই এলাকায় খাবারের ভালো ব্যবস্থা রয়েছে।

৩. পাতাবাড়ি বৌদ্ধ বিহার

কক্সবাজার সদর থেকে বাসে করে উখিয়া স্টেশনে পৌঁছে সেখান থেকে সিএনজি বা রিকশায় করে এক কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে পাতাবাড়ি বৌদ্ধ বিহারে পৌঁছানো যায়। বিহারের নান্দনিক স্থাপত্য চোখ জুড়াবে। মন প্রশান্ত হওয়ার মতো একটি জায়গা পাতাবাড়ি বৌদ্ধ বিহার।

৪. মাতামুহুরী নদী

কক্সবাজার সদর থেকে সিএনজি বা হেঁটে যাওয়ার পথ। সিএনজিতে গেলে সর্বোচ্চ ১০০ থেকে ১২০ টাকা দিতে হবে ভাড়া হিসেবে। নদীর মোহনা দেখে মন প্রশান্ত হবে। মাতামুহুরী নদীর চারপাশ ঘুরে স্বস্তি পাবেন। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেয়া বা পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর উপযুক্ত স্থান এটি।

৫. বার্মিজ মার্কেট

কক্সবাজার সদর উপজেলা থেকে চার কিলোমিটার দূরে বিভিন্ন ধরনের যানবাহনে করে বার্মিজ মার্কেটে যাওয়া যায়। বার্মিজ মার্কেটে সামুদ্রিক প্রবাল, ঝিনুক, মুক্তাসহ কাপড় ও ব্যাগ কিনতে পাওয়া যায়। এখান থেকে পছন্দের সব জিনিস কিনতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *