হেনস্থা করছে কিউবি, ক্ষুব্ধ কনটেন্ট ক্রিয়েটররা


কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের হেনস্থা করছে ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট কিউবি কর্তৃপক্ষ। কয়েকজন কনটেন্ট ক্রিয়েটরের সঙ্গে কথা বলে বিবিসির প্রতিবেদনে উঠে আসে এমন চাঞ্চল্যকর খবর। প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি সপ্তাহে কিউবি ভিডিও স্ট্রিমিং সেবা চালুর পর থেকে কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের কাজের মূল্যায়ন করছে না কর্তৃপক্ষ। বরং তারা ফ্রি সার্ভিসের কথা বলে গ্রাহকের কাছ থেকে কনটেন্ট তৈরিতে অতিরিক্ত অর্থ নিচ্ছে।

চলতি বছরের শুরুতে মোবাইল বাজারে বেশ কয়েকটি স্মার্টফোন এসেছে। মোবাইলে ভিডিও স্ট্রিমিংকে পুঁজি করে কিউবি অ্যাপ সম্প্রতি ভিডিও স্ট্রিমিং সার্ভিস শুরু করেছে। এই সার্ভিস তৈরি করতে কিউবি কর্তৃপক্ষ প্রায় দুই বিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছে। বিবিসিসহ অধিকাংশ মিডিয়া প্রতিষ্ঠান এই সার্ভিসে সক্রিয় রয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, কিউবি কনটেন্ট কিউরেটরদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় তারা এখনও পর্যন্ত কিউবির সঙ্গে চুক্তিভিত্তিক কাজ করে আসছেন কিন্তু তারা স্বীকৃতি পান নি। তার মধ্যে জোনাথন কিউবির নিউজ শোতে কনটেন্ট কিউরেটর হিসেবে বিবিসিকে কিউবিতে কাজের অভিজ্ঞতার কথা জানান। তিনি বলেন, ‘প্রথমে আমি অ্যাপটির সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করেছিলাম। কিন্তু সেটি ছিল আমার ভুল।’

কুইবির সহ-প্রতিষ্ঠাতা জেফরি কাটজেনবার্গ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘শো থেকে আমাদের দূরে থাকতে হতো এবং তার কোনও প্রয়োজন হলে আমাদের নোট লিখে পাঠাতেন এবং আমরা সেই নোট অনুযায়ী সব কাজ করতাম।’

তিনি জানান, এই বিষয়টি তাকে বিস্মিত করেছে।

মাইকেল নামে আরেক প্রডিউসার জানান, ‘কিউবি খুব আহামরি মেধার পরিচয় দিয়েছে এমন নয়। তারা কেবল অর্থোপার্জনের জন্য কনটেন্ট তৈরি করে থাকে। তাই বাজারে সফল অবস্থান ধরে রাখার কোনও প্রচেষ্টাই তাদের মধ্যে দেখতে পাইনি।’

ড্রামা-সিরিজের অভিনেতা জুলিয়ান বলেন, ‘শুরু থেকে একটি সন্দেহ দানা বেধেছে- গ্রাহকরা কেন তাদেরকে অর্থ দিচ্ছে; যেখানে তারা বলে দিয়েছে ফ্রিতে কনটেন্ট তৈরি করবে।’

কিউবি কর্তৃপক্ষের এমন অনিয়মের কারণে কনটেন্ট কিউরেটররা কর্তৃপক্ষের ওপর ক্ষুব্ধ হয়েছেন। এর জবাবে কিউবি প্রধান নির্বাহী মেগ হুইটম্যান ও চেয়ারম্যান জেফরি কাটজেনবার্গের নামে এক বিবৃতি দেয়া হয়। এতে বলা হয়, ‘সৃজনশীল কনটেন্টের জন্য আমাদের দরজা সবসময় খোলা।’

কিউবি কর্তৃপক্ষের এমন অনিয়মের কারণে কনটেন্ট ক্রিয়েটররা সম্মানহানির শিকার হয়েছেন। উল্লেখ্য, এই অ্যাপটিতে মুভি দেখা ছাড়াও গান শোনার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া এতে বিভিন্ন ধরনের ওয়েব সিরিজও দেখা যায়।