মাইক্রোসফটের ওয়েবসাইট হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িতদের খোঁজ মিলেছে

যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কার্যালয়ের ওয়েবসাইট হ্যাকিংয়ের পেছনে রাশিয়ার হ্যাকাররা জড়িত। বেআইনিভাবে তাদের ওয়েবসাইটে অনুপ্রবেশ আর সহ্য করা হবে না। বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের টেক কোম্পানি মাইক্রোসফট কর্তৃপক্ষ ব্লগপোস্টে এমন তথ্য জানিয়েছে।

মাইক্রোসফট কোম্পানি ওয়েবসাইট হ্যাকিংয়ের তদন্তে দেখতে পায়, হ্যাকাররা মাইক্রোসফট কোম্পানির ওয়েবসাইটের সোর্স কোড ব্যবহার করে বারবার হ্যাকিং করে আসছে। মাইক্রোসফটের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়েছে, ‘হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িত কারা তা আমরা শনাক্ত করতে পেরেছি। হ্যাকিংয়ের ক্ষেত্রে হ্যাকাররা সোর্স কোড ব্যবহার করেছে।’ তারা আরও জানায়, ‘যারা হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িত তাদের সোর্স কোড ব্যবহারের অনুমতি ছিলো না।’

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সির সাবেক কর্মকর্তা এবং নটর ডেম ইউনিভার্সিটির তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের অধ্যাপক মাইক চ্যাপল বলেন, হ্যাকাররা এতদিন অনলাইনে মাইক্রোসফটের প্রডাক্টের মধ্যে দুর্বলতা খুঁজে আসছিলো।

তিনি আরও বলেন, সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের এখন প্রয়োজন মাইক্রোসফটের দুর্বলতা থেকে শিক্ষা নেয়া। তবে এর প্রতিক্রিয়ায় মাইক্রোসফট বলেছে, তারা সিকিউরিটি প্রডাক্টের জন্য কেবল সোর্স কোডের ওপর নির্ভর করে না এবং যেগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেগুলো দেখে তারা বুঝেছে যে হ্যাকাররা তাদের সোর্স কোড দিয়ে ওয়েবসাইটে বেআইনিভাবে অনুপ্রবেশ করেছে।

সিএনএন জানায়, সোর্স কোড কম্পিউটার প্রোগ্রামিংয়ের একটি বিষয়। এর মধ্য দিয়ে প্রোগ্রামাররা প্রোগ্রামিং বা কোডিং করার সময় বিভিন্ন নির্দেশনা পেয়ে থাকেন। মাইক্রোসফট তাদের আইটি সফটওয়্যার ব্যবস্থাপনা বিভাগ সোলারউইন্ডস ওরিয়নের সাহায্যে হ্যাকিং প্রতিরোধ করে আসতে থাকে। তবে কঠোর ব্যবস্থার মধ্যেও মাইক্রোসফটের সোর্স কোড ব্যবহার করে হ্যাকিংয়ের ঘটনা এবারই প্রথম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *