মিথ্যা ধরার কৌশল

শখ করে কেউ মিথ্যা বলে না। বিপদ থেকে বাঁচতে কিংবা নিজেকে নির্দোষ করতে প্রমাণ মানুষ বিভিন্ন সময় মিথ্যা বলে থাকে। এমন কিছু সময় আসে যখন মিথ্যা বলাটা অপরিহার্য হয়ে ওঠে। কেউ যখন মিথ্যা বলে তখন কিছু অস্বাভাবিক আচরণ করে থাকে। এতে করে তার মিথ্যা ধরা সহজ হয়। কিন্তু অনেকে আবার এমনভাবে গুছিয়ে মিথ্যা বলে যে সেই মিথ্যা ধরা সহজ হয় না। বরং অনেকেই সেই মিথ্যার ফাঁদে পড়েন। এতে করে অনেক সময় গুণতে হয় বড়সড় মাশুল।

মিথ্যার ফাঁদে পড়তে না চাইলে মিথ্যা ধরার কৌশল সম্পর্কে জানতে হবে। আপনি যদি কারও সঙ্গে কথা বলার সময় সতর্ক থাকেন তবে কে মিথ্যা বলছে তা বুঝতে পারা সহজ হবে। মানুষের আচরণ ও কথাবার্তার ওপর দীর্ঘ গবেষণা করে বিশেষজ্ঞরা মিথ্যা ধরার কিছু কৌশল নির্ণয় করেছেন। সেগুলো জানা থাকলে সহজেই আপনি অন্য কারও বলা মিথ্যা ধরে ফেলতে পারবেন। কে মিথ্যা বলছে আর কে সত্যি, তা বোঝার জন্য জেনে নিন সেসব কৌশল-

কেউ মিথ্যা বলছে কি-না তা বোঝার জন্য অবশ্যই তার কথা মনোযোগ দিয়ে শুনতে হবে। মানুষ যখন কোনো অপরাধ করে তখন কোনো না কোনো প্রমাণ রেখে যায়। তেমনই মিথ্যা বলার ক্ষেত্রেও মানুষ কিছু চিহ্ন রাখেই। আর সেই সূত্র ধরে আগালেই তার মিথ্যা প্রমাণ করা সম্ভব হয়। আপনি যদি মনোযোগী শ্রোতা হয়ে থাকেন তবে খেয়াল করবেন কেউ মিথ্যা বললে তার দেয়া তথ্যে কিছু গড়মিল থাকে। আবার অনেক সময় তার আগের বলা গল্পের সঙ্গে পরের গল্পে অনেক অসঙ্গতি থাকে। আর এ থেকেই মিথ্যা ধরা সহজ হয়।

মানুষ যখন কোনো বিষয়ে সত্যি বলে তখন তার কথা এবং অভিব্যক্তি মিলে যায়। তাই কেউ মিথ্যা বলছে কি-না তা বোঝার জন্য কথা বলার সময় তার মুখের দিকে খেয়াল করুন। যদি তার শারীরিক ভাষার সঙ্গে বলা কথাগুলো মিলে যায় তবে বুঝবেন সে সত্যি বলছে। কিন্তু যদি কথা ও অভিব্যক্তি না মেলে তবে বুঝে নেবেন সে মিথ্যা বলছে। কারণ কেউ যখন মিথ্যা বলে তখন খুশি খুশি ভাব দেখাতে চাইলেও মূলত তার চেহারা মলিন থাকে।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, কেউ কোনো বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে স্বস্তিবোধ না করলে তখন তার চোখের মণি এদিক-সেদিক নড়াচড়া করতে থাকে। সে চোখে চোখ রেখে কথা বলতে পারে না। এরকমটা হলে বুঝবেন সে সত্যিটা বলতে চাইছে না, কোনোকিছু লুকাতে চাইছে এবং মিথ্যা বলছে।

আপনি যদি মনোযোগী থাকেন তবে কৃত্রিম হাসি চিনতে পারার কথা। যখন কেউ মিথ্যা বলে তখন সে কৃত্রিম হাসি দিয়ে অপরের আস্থা অর্জনের চেষ্টা করে। মিথ্যা বলার সময় অনেকে কাশি কিংবা হাঁচিরও সাহায্য নিতে পারে। এসব দিকে খেয়াল করলে আপনার জন্য মিথ্যা ধরা বেশ সহজ হবে।

মিথ্যা বলার সময় মানুষ ঘন ঘন চোখের পাতা ফেলতে পারে। এক্ষেত্রে পরপর পাঁচ-ছয়বার সে চোখের পাতা ফেলতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, মানুষ মিথ্যা বলার সময় সাধারণত প্রতি মিনিটে পাঁচ কিংবা ছয়বার অর্থাৎ দশ সেকেন্ড পরপর চোখের পাতা ফেলে থাকে। কাউকে কথা বলার সময় এমনটা করতে দেখলে ভালোভাবে যাচাই করে নিন, সে আসলেই সত্যি বলছে কি-না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *