লাদাখে কী দেখবেন

ভারতের একটি অঙ্গরাজ্য লাদাখ। লাদাখ ভ্রমণ একই সঙ্গে আনন্দ দেয় আবার কখনও চ্যালেঞ্জেরও সম্মুখীন করে। লাদাখে অনেকগুলো দর্শনীয় স্থান রয়েছে। যেমন ডাল হ্রদ, প্যাংগং টিএসও এবং আরও অনেক জায়গা। শ্রীনগর থেকে গাড়ির ব্যবস্থা করে লাদাখের অনেক দর্শনীয় স্থান দেখতে যাওয়া যায়। শ্রীনগর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যবেষ্টিত একটি শহর। এর পাশে গুলমার্গও রয়েছে। শ্রীনগরে রয়েছে মুঘল গার্ডেন এবং ডাল হ্রদ। রাতে সময় কাটানোর জন্য শিলা অ্যানি হাউসবোটে রয়েছে।

শ্রীনগরের পথে

শ্রীনগরের পর লাদাখে উল্লেখযোগ্য দুটি দর্শনীয় স্থান হলো সোনমার্গ এবং কারগিল। কারগিলে যাওয়ার পথে সোনমার্গে বরফ পড়ার মনোমুগ্ধকর দৃশ্য পর্যটকদের বিমোহিত করে। ৪ কিলোমিটার পথ জুড়ে শুধু বরফ পড়ছে। এমন দৃশ্য পর্যটককে অন্য কোনো জগতে নিয়ে যায়। সোনমার্গের পর কারগিল লাদাখের আরেকটি দর্শনীয় স্থান। কারগিলে অবস্থিত জিরো পয়েন্ট এবং কারগিল যুদ্ধের মেমোরিয়াল গুরুত্বপূর্ণ জায়গা।

সোনমার্গ ও কারগিল

সোনমার্গ ও কারগিলের পর রয়েছে লেহ। এটি পর্যটকদের কাছে জনপ্রিয় দর্শনীয় স্থান। সেখানে নামিকা লা এবং ফতু লাতে নামে দুটি জায়গা রয়েছে। এই দুই স্থানে লামায়ুরু আশ্রম, সঙ্গম পয়েন্ট ও ম্যাগনেটিক পাহাড় দেখা যায়। লেহতে আরও একটি আকর্ষণীয় স্থান রয়েছে আর সেটি হলো গুরুদুয়ারা পাথরসাহেব। এখানে এলে বিষণ্ন মন ভালো হয়ে যাবে।

মরিরি হ্রদ

লাদাখে আরও একটি জায়গা রয়েছে যার নাম মরিরি হ্রদ। লাদাখের সবচেয়ে বড় হ্রদ এটি। পর্যটকরা এখানে খুব ভালো সময় কাটাতে পারবে। লাদাখের উত্তর-পূর্বদিকে অবস্থিত একটি জায়গা হলো নুর্বা উপত্যকা। এখানে দিস্কিট নামে একটি আশ্রম রয়েছে। যা লাদাখের সবচেয়ে প্রাচীন আশ্রম। এছাড়া তুরতুক নামে একটি স্থান ১৯৭১ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের অধীনে থাকলে বর্তমানে ভারতের অধীনে রয়েছে। কারাদুং পাসে রয়েছে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের শান্তিমূর্তি। যার সামনে বৌদ্ধরা আরাধনা করে থাকেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *